You are here
Home > নির্বাচন > ২০১৮ সালের নির্বাচনে আবারো আ.লীগই ক্ষমতায় আসবে : মোহাম্মদ নাসিম

২০১৮ সালের নির্বাচনে আবারো আ.লীগই ক্ষমতায় আসবে : মোহাম্মদ নাসিম

খন্দকার মোহাম্মাদ আলী,সিরাজগঞ্জ :

আজ দুপুরে সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলা আ.লীগ আয়োজিত এক বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ১৪ দলের সমন্বয়ক এবং স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রি মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ২০১৮ সালের নির্বাচন হবে বিজয়ের মাসে আর বিজয়ের মাসে এই নির্বাচনে জননেত্রি শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আ.লীগই আবারো ক্ষমতায় আসবে ইনশা আল্লাহ। তিনি বলেন, ২০১৪ সালে যেমন আগুন সন্ত্রাস করে বিএনপি ক্ষমতায় আসার খোয়াব দেখেছিল। কিন্তু জনগণ তার সেই খোয়াবকে বাস্তবে রূপ দিতে দেয়নি। এবারও এতিমের টাকা চুরির দায়ে জেলে থাকা খালেদার অনৈতিক কোন স্বপ্ন জনগণ মেনে নেবেনা। বিএনপি নেত্রি খালেদা জিয়ার উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের খেলা শুরু হয়ে গেছে। এখনও সময় আছে অতীত অপরাধের জন্যে জনগণের নিকট ক্ষমা চেয়ে নির্বাচনে আসুন।
মনে রাখবেন, এবার নির্বাচনে না এলে জনগণ আপনাকে সরাসরি লালকার্ড দেখাবে। প্রধান অতিথি এর আগে বিশেষ অতিথি মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রি আ.ক.ম মোজাম্মেল হক ও নৌ পরিবহনমন্ত্রি শাহজাহান খান এমপিকে পরিচয় করিয়ে দেন। এরপর তাদের সাথে নিয়ে কাজীপুরের ঐতিহাসিক বরইতলা মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি কমপ্লেক্স, মনসুর আলী স্মৃতি কমপ্লেক্স ও কুড়িপাড়া শহিদ এম মনসুর আলী স্মৃতি কমপ্লেক্স এর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রি আ.ক.ম মোজাম্মেল হক বলেন, জাতির জনকের সহচর শহিদ এম মনসুর আলীর স্মৃতি বিজড়িত কাজীপুরের মাটিতে তার নামে স্মৃতি কমপ্লেক্স এর নির্মাণকাজ উদ্বোধন করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। তিনি আরও বলেন, সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের এখন থেকে স্মাধীনতা দিবস ও বৈশাখী ভাতাও দেবার ব্যবস্থা করছে।
সেইসাথে হয়রানী এড়াতে তাদের স্ব স্ব একাউন্টে সকল ভাতার টাকা জমা হবে। কোটা নিয়ে বিএনপি জামাত নতুন করে রাজনীতি করার পায়তারা করছে বলে সবাইকে সজাগ থাকার পরামর্শ দিয়ে মন্ত্রি বলেন, যারা প্রাণবাজী রেখে যুদ্ধ না করলে বাংলাদেশ হতো না তাদের বিরুদ্ধে যারা কথা বলে তারা এদেশের এবং এই জাতির শত্রু।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নৌ পরিবহনমন্ত্রি শাহজাহান খান বলেন, আদর্শহীন রাজনীতি দেশ ও জনগণের কল্যাণ করতে পারে না। বিএনপি একটি আদর্শহীন দল উল্লেখ করে মন্ত্রি বলেন, যারা শুরু থেকেই যুদ্ধাপরাধীদের সাফাই গাইছেন, তাদের মন্ত্রিসভায় স্থান দিয়ে গাড়িতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়েছেন তাদের বিচারে যখন ফাঁসি হলো তখন খালেদা জিয়া কোন মন্তব্য করেননি। এইরকম ধোকাবাজ দলকে জনগণ অতীতের মতো এবারের নির্বাচনেও ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করবে।

তিনি আরও বলেন, কোটা সংস্কারের আন্দোলনের সাথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির কিসের সম্পর্ক যে তার বাসায় তান্ডব চালানো হলো। আসলে কোন ইস্যু না পেয়ে বিএনপি-জামাত চক্র এখন কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ভুল বুঝিয়ে আন্দোলনে নামানোর অপচেষ্টা করছে। কিন্তু দেশের মানুষ এখন উন্নয়নশীল দেশের স্বপ্নে বিভোর। তারা উন্নয়ন চায়, সমৃদ্ধি চায়।
তাই উন্নয়নে বাধা সৃষ্টিকারী যেকোন অপতৎপরতাকে জনগণ প্রতিহত করবে। এসময় তিনি কাজীপুরে যমুনার উভয় পাড়ে নৌবন্দর স্থাপনের প্রক্রিয়া দ্রুতই শুরু করার আশ্বাস দেন। সাবেক এমপি প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয় এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্য বগুড়া -৫ (ধুনট-শেরপুর) আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাবিবর রহমান, কাজীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মোজাম্মেল হক বকুল সরকার, সিরাজগঞ্জ জেলা আ.লীগের সহ সভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য, কাজীপুর উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডার এসএম হাবিবুর রহমান, কাজীপুর উপজেলা আ.লীগের সাধারন সম্পাদক খলিলুর রহমান সিরাজী প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। এরপর তিনমন্ত্রি যমুনার মেঘাই ঘাট পরিদর্শন করেন ও বিকেলে সিরাজগঞ্জের পিপুলবাড়িয়ায় এক জনসভায় যোগ দেন।

Leave a Reply

Top