You are here
Home > প্রচ্ছদ > হারুনার রশিদ খান মুন্নুর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা বিএনপির

হারুনার রশিদ খান মুন্নুর প্রতি শেষ শ্রদ্ধা বিএনপির

স্টাফ রিপোর্টারঃ দলের প্রবীন নেতা ও বিশিষ্ট শিল্পপতি মরহুম হারুনার রশিদ খান মুন্নুর কফিনে পুস্পমাল্য অর্পন করে তার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছে বিএনপি। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খানসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ প্রথমে কফিনটি দলীয় পতাকা দিয়ে ঢেকে দেন এবং এরপর পুস্পমাল্য অর্পন করেন। এর আগে মরহুমের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা নিবেদন করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, হারুনার রশিদ খান মুন্নু সিরামিক ইন্ডাষ্ট্রির পথিকৃৎ। তিনি তার জেলায় মানিকগঞ্জে অনেক প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। বিশেষ করে স্বাস্থ্য সেবার জন্যে যা অনন্য অবদান। সাধারণ মানুষের সেবায় তিনি সারা জীবন কাজ করেছেন। আমরা তার মৃত্যুতে শোকগ্রস্থ। তিনি আমাদের মাঝ থেকে চলে গেছেন, আমরা জানি তার এই চলে যাওয়ার শূণ্যতা পুরণ হবার নয়। আমরা দোয়া করব, আল্লাহ রাব্বুল আলামমিনের কাছে তাকে যেন বেহেস্ত নসিব করেন। গত মঙ্গলবার ভোরে মানিকগঞ্জ মুন্নু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা, সাবেক মন্ত্রী ও সাংসদ, মুন্নু গ্রুপ অব ইন্ডাষ্ট্রিজের চেয়ারম্যান হারুনার রশিদ খান মুন্নু মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৮৬ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বাধ্যর্ক্যজনিত নানা রোগে ভুগছিলেন। সকাল সোয়া ১০টায় নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে হারুনার রশিদ খান মুন্নু‘র নামাজে জানাজা কয়েক‘শ নেতা-কর্মী অংশ নেন। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, নজরুল ইসলাম খান, কেন্দ্রীয় নেতা এজেডএম জাহিদ হোসেন, আহমেদ আজম খান, আবদুস সালাম, তৈমুর আলম খন্দকার, মোহাম্মদ শাহজাদা মিয়া, ডাঃ ফরহাদ হালিম ডোনার, রুহুল কবির রিজভী, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, বদরুজ্জামান খসরু, সেলিম ভুঁইয়া, মীর সরফত আলী সপু, আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, আবদুস সালাম আজাদ, আমিরুজ্জামান খান আলিম, তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ, অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, অঙ্গসংগঠনের কাজী আবুল বাশার, আনোয়ার হোসাইন, আবদুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, আকরামুল হাসান, ঢাকা জেলার ডা. দেওয়ান মো. সালাউদ্দিন, খন্দকার আবু আশফাক, জামায়াতে ইসলামের মোঃ সেলিমুদ্দিন, মরুহুম মুন্নুর বড় মেয়ের জামাতা মইনুল ইসলাম প্রমূখ জানাজায় ছিলেন। এরপর সকাল ১১টায় সংসদ ভবনের দক্ষিন প্লাজায় অনুষ্ঠিত হয় দ্বিতীয় জানাজা। পরিবারের সদস্যরা জানান, সংসদ ভবনে জানাজার পর অ্যাম্বুলেন্সে করে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে মানিকগঞ্জে। সেখানে দুপুর দেড়টায় মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া সৈয়দ কালুশাহ কলেজ মাঠে, আড়াইটায় হরিরামপুরের পাটগ্রাম হাইস্কুল মাঠে, বিকাল সাড়ে তিনটায় মুন্নু মেডিকেল কলেজ মাঠে, সাড়ে চারটায় মুন্নু সিটিতে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর বিকাল সাড়ে ৫টায় মানিকগঞ্জ হুরুন্নাহার মুন্নু জামে মসজিদের পাশে পারিবারিক কবরাস্থানে তাকে দাফন করা হবে। এদিকে বুধবার সকালে লন্ডন থেকে তার বড় মেয়ে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আফরোজা খান রীতা দেশে ফিরেছেন।

Leave a Reply

Top