You are here
Home > খেলাধুলা > স্টিভেন স্মিথের অধিনায়ক হওয়ার গল্প

স্টিভেন স্মিথের অধিনায়ক হওয়ার গল্প

অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক পিঠে চোট পাওয়ার পরে অনেকেই ভেবেছিলেন, নেতৃত্বের দায়িত্ব দেওয়া হবে ব্র্যাড হাডিনের হাতে। কিন্তু সবাইকে অবাক করেই দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয় স্টিভেন স্মিথকে। কিম হিউজের পর দ্বিতীয় তরুণতম হিসেবে এই দায়িত্ব পান তিনি।

সে সময়ই এই নিয়ে অনেক বিতর্ক হয়েছিল। কিন্তু কী কারণে স্মিথ দায়িত্বটা পেলেন, সেটা প্রকাশ্যে আসেনি। অবশেষে স্মিথ নিজেই ব্যাপারটা খোলসা করলেন। নিজের আত্মজীবনী ‘দ্য জার্নি’তে স্মিথ লিখেছেন, তাকে এই দায়িত্ব দেওয়ার পেছনে আসল ভূমিকা ছিল হাডিনেরই।

২০১৪ সালে অ্যাডিলেড টেস্টের পরে একটি পাবে ক্লার্ক, স্মিথ, হাডিনের সঙ্গে ছিলেন ক্রিকেট বোর্ডের সদস্য মার্ক টেলর। তার মতোই স্মিথও ভেবেছিলেন দায়িত্ব দেওয়া হবে হাডিনকে। অজি উইকেটরক্ষককে এই প্রস্তাব দেওয়া হতেই তিনি টেলরকে জানান, অস্ট্রেলিয়ার উচিত ভবিষ্যতের দিকে তাকানো এবং স্মিথের হাতে অধিনায়কত্ব তুলে দেওয়া। স্মিথ লিখেছেন, ‘আমি ভেবেছিলাম বোধহয় মজা করছে।’ তখনই টেলর তাকে প্রশ্ন করেন, ‘তুমি কি তৈরি?’ স্মিথ জানান, তিনি তৈরি। পরের সপ্তাহেই তার হাতে অধিনায়কের ব্লেজার তুলে দেওয়া হয়।

জীবনের এরকম অনেক অজানা কথাই নিজের আত্মজীবনীতে তুলে ধরেছেন স্মিথ।

এদিকে আইসিসির নতুন প্রস্তাবিত চার দিনের টেস্টের তীব্র বিরোধিতা করেছেন স্মিথ এবং ডেভিড ওয়ার্নার। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে স্মিথ বলেছেন, ব্যক্তিগতভাবে আমি চাই ৫ দিনের টেস্টটাই থাকুক। যেভাবে প্রথা মেনে টেস্ট খেলাটা হয়ে আসছে, সেটাই চলুক। পঞ্চম দিনের শেষ ঘণ্টায় খেলা চলে যাওয়া, আমার কাছে ব্যাপারটা বেশ রোমাঞ্চকর।

Leave a Reply

Top