You are here
Home > আন্তর্জাতিক > সৌদি আরব থেকে কাতারের উট-ভেড়া বহিষ্কার

সৌদি আরব থেকে কাতারের উট-ভেড়া বহিষ্কার

সৌদি আরবের মরুভূমিসংলগ্ন প্রত্যন্ত সীমান্ত পেরিয়ে কাতারে ফিরে যাচ্ছে উট ও ভেড়ার পাল। ছবিটি গতকাল মঙ্গলবার তোলা। ছবিঃ রয়টার্স

স্টাফ রিপোর্টারঃ পশুচারণভূমি থেকে কাতারের সব উট ও ভেড়া সরিয়ে নিতে নির্দেশ দিয়েছে সৌদি আরব। সৌদি আরবসহ উপসাগরীয় কয়েকটি দেশ কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করার পর দেশটি এই নির্দেশ দিয়েছে।

কাতার কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রায় ১৫ হাজার উট ও ১০ হাজার ভেড়া সৌদি আরব থেকে সীমান্ত পেরিয়ে ফেরত এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ফেরত আসা উট ও ভেড়ার পালের জন্য কাতারে জরুরি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। সেখানে পানি এবং পশুখাদ্যের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ছোট দেশ কাতারে চারণভূমির সংকটের কারণে অনেকেই তাঁদের উট ও ভেড়া সৌদি আরবের চারণভূমিতে রাখেন।

চলতি মাসের শুরুর দিকে সৌদি আরবসহ উপসাগরীয় কয়েকটি দেশ কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছেদ করেছে। দেশগুলোর অভিযোগ, কাতার ইসলামি জঙ্গিবাদকে সমর্থন দিচ্ছে। তবে কাতার এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে।

সৌদি আরব থেকে উট নিয়ে কাতারে ফিরে যাচ্ছেন পশুপালকেরা। ছবিটি গতকাল মঙ্গলবার তোলা। ছবিঃ রয়টার্স

কাতারের পৌর ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সৌদি আরব থেকে ফেরত আসা উট ও ভেড়ার পালের জন্য নতুন জায়গা খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত অস্থায়ী আশ্রয়শিবিরেই রাখা হবে। পশু বিশেষজ্ঞ, চালকসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা পশুর মালিকদের সহযোগিতা করতে সেখানে অবস্থান করছেন।

জসিম কাত্তান নামের কাতারের একজন কর্মকর্তা বলেন, এ পর্যন্ত প্রায় ২৫ হাজার উট ও ভেড়া সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে পোস্ট করা একটি ভিডিও চিত্রে দেখা গেছে, সম্প্রতি উট ও ভেড়ার পাল সৌদি আরবে মরুভূমির সীমান্ত পেরিয়ে কাতারে ঢুকছে।

এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন কাতারের পশুপালকেরা। আলী মাগারেহ নামের একজন পশুপালক বলেন, ‘আমরা এসব রাজনৈতিক বিষয়ে জড়িত হতে চাই না। এ ব্যাপারে আমরা মোটেও খুশি নই।’

Leave a Reply

Top