You are here
Home > প্রচ্ছদ > সহায়ক সরকারের কথা বলে লাভ নেই, খালেদাকে সেতুমন্ত্রী

সহায়ক সরকারের কথা বলে লাভ নেই, খালেদাকে সেতুমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টারঃ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সহায়ক সরকারের কথা বলে লাভ নেই। সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকার ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহসড়কে ঈদে যাত্রীদের নিরাপত্তার বিষয়ে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) এর কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এর আগে মন্ত্রী চলমান বাসের যাত্রী ও চালকদের উদ্দেশ্যে লিফলেট বিতরণ করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সংবিধানে সহায়ক সরকারের কোন বিধান নেই। এছাড়াও পৃথিবীর কোন দেশে সহায়ক সরকার বলে নির্বাচনকালীন কোন সরকার নেই। তাহলে বাংলাদেশে কেন বেগম জিয়া এর আশা করছেন, তিনি কি সহায়ক সরকার করেছিলেন? এখন এসব কথা বলে লাভ নেই। সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে।

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, নির্বাচনে বেগম জিয়া আসবেন সেটাও আমরা জানি। কারণ এ নির্বাচনে আসার জন্য তারা নিজেরা নিজেদের দলেই চাপের সম্মুখীন আছেন। তারা এ নির্বাচনে না আসলে বিএনপির অবস্থান মুসলিমলীগের চেয়েও খারাপ হবে। পর পর নির্বাচন বয়কটের পরিণতি তাদেরকে চুরাবালিতে আটকে রাখবে এবং এ ধরনের অস্তিত্বের ঝুঁকি বেগম জিয়া নিবেন বলে আমার বিশ্বাস হয় না।

সংসদের বাজেট নিয়ে অর্থমন্ত্রীকে সাংসদদের সমালোচনার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘জাতীয় সংসদের বাজেট নিয়ে যে বির্তক হচ্ছে এ বির্তক গণতন্ত্রের জন্য স্বাস্থ্যকর একটা বির্তক। এ বির্তকই হচ্ছে গণতন্ত্রের প্রাণ। বির্তক না থাকলে গণতন্ত্র কখনো প্রতিষ্ঠা পায় না এবং গণতন্ত্রের কোন ডিউটি থাকে না। গণতন্ত্রের ডিউটি হচ্ছে বির্তক।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, প্রস্তাব উথাপন মানেই বাজেট পাশ নয়। বাজেট পাশ হবে ২৯ তারিখে। প্রধানমন্ত্রী এ বিষয়ে সকলকে নিয়ে বসেছেন, কথা বলেছেন, আলাপ আলোচনা হয়েছে। আগামী বাজেট যখন সংসদে পাশ হবে, আমি মনে করি সবার কাছে গ্রহণযোগ্য হবে, জনগণ খুশি হবে এবং বিএনপির মুখ বন্ধ হয়ে যাবে। ’

যানজট বিষয়ে বলেন, ‘বড় ধরনের কোনো জটপূর্ণ পরিস্থিতি সৃষ্টি না হলে এবারের ঈদ যাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে। জনগণের ভোগান্তি সহনীয় পর্যায় রাখার জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। আমাদের প্রকৌশলীদের ছুটি বাতিল করেছি। যেখানে অবহেলা সেখানে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। গতকাল গাজীপুর ও ভুলতার দুই প্রকৌশলীকে শোকজ করা হয়েছে। কোন প্রকার দায়িত্ব অবহেলা সহ্য করা হবে না। পুলিশসহ সিভিল প্রশাসন রাস্তায় আছে। আমাদের পার্টির নেতাকর্মী ও তরুণ নেতাকর্মীদের যাত্রীদের পাশে থাকার জন্য রাস্তায় থাকতে অনুরোধ করা হয়েছে।

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সড়ক ও জনপথ বিভাগের ঢাকা জোনের অতিরিক্ত প্রকৌশলী আব্দুস সবুর, বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) এর পরিচালক (প্রশাসন) নাজমুল আহসান মজুমদার, নারায়ণগঞ্জ সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী আলীউল হোসেন, উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী ইমরান ফারহান সুমেল ও আব্দুস সাত্তার প্রমুখ।

Leave a Reply

Top