সরিষাবাড়ীতে বন্যায় ৪০ গ্রাম প্লাবিত, পানি বন্দি ৫০হাজার ও ৫০শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান বন্ধ – Live News BD, The Most Read Bangla Newspaper, Brings You Latest Bangla News Online. Get Breaking News From The Most Reliable Bangladesh Newspaper; livenewsbd.co
You are here
Home > সারা বাংলা > জেলার খবর > সরিষাবাড়ীতে বন্যায় ৪০ গ্রাম প্লাবিত, পানি বন্দি ৫০হাজার ও ৫০শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান বন্ধ

সরিষাবাড়ীতে বন্যায় ৪০ গ্রাম প্লাবিত, পানি বন্দি ৫০হাজার ও ৫০শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান বন্ধ

তৌকির আহাম্মেদ হাসু, সরিষাবাড়ী (জামালপুর) ঃ

অতি বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে বন্যার পানি প্রবেশ করায় জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে বন্যায় ৪০ টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।প্রায় ৫০ হাজার মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে।এ ছাড়াও ৫০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শির্ক্ষাথীদের পাঠদান বন্ধ রয়েছে।

ভেঙ্গে গেছে উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের মানিক পটল রহিম ম্বোরের বাড়ীর পার্শ্বে গ্রামের পাকা রাস্তা ব্রীজ ও ডোয়া¦ইল ইউনিয়নের হাটবাড়ী মাঝি পাড়া বেড়ী বাধ।ফলে হাজার মানুষ পানি বন্দী হয়ে পড়েছে।উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে-উপজেলার সাতপোয়া ইউনিয়নের ৯টি,পোগলদিঘা ইউনিয়নের ৭টি গ্রাম,আওনা ইউনিয়নের ৫টি গ্রাম,পিংনা ইউনিয়নের ৬টি গ্রাম,ভাটারা ইউনিয়নের ৩টি গ্রাম,কামরাবাদ ইউনিয়নের ৫টি গ্রাম নিম্নাঞ্চলে বন্যার পানি প্লাবিত হওয়ার ফলে পানি বন্দি হয়ে পড়েছে ১২ হাজার মানুষ।নিমজ্জিত হয়েছে ফসলি জমি ৫৯০হেক্টর,বীজতলা-২০০ হেক্টর,ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৩০ হাজার পরিবার,ক্ষতিগ্রস্থ লোক সংখ্যা-৪৭হাজার ৩০০শত,ক্ষতিগ্রস্থ ঘরবাড়ী ৫৪০টি,নলকুপ-১১৫টি,ল্যাট্রিন-৫৩০টি, ক্ষতিগ্রস্ত কাচা রাস্তা ৪২কিঃমিঃ,ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৭ টি বাধ,বন্যার পানি প্রবেশ করায় ৫০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান বন্ধ রয়েছে।

এ দিকে সরিষাবাড়ী পৌর সভার কোনাবাড়ী গ্রামে ঝিনাই নদীর পানি উন্নয়ন বোর্ড়ের বাধ কোনাবাড়ী সুইচ গেটের উত্তর পার্শ্বে বাধ ভেঙ্গে ৭ টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

হুমকিতে রয়েছে কোনাবাড়ী সুইচ গেটের পুর্ব পার্শ্বে থেকে কোনাবাড়ী কুঠিয়াল বাড়ী পর্যন্ত বাধটি বন্যার পানি বৃদ্ধি পেলে যে কোন সময় বাধ ভেঙ্গে বসত বাড়ী নদীতে বিলীন সহ ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হওয়ার আশংকা করছেন এলাকাবাসী।এ ছাড়াও পৌর সভার মাইজবাড়ী ব্রীজ পাড় মোড় হতে উত্তরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাস্তার ইদ্রিসের বাড়ীর দুটি স্থানে যে কোন সময় রাস্তা ভেঙ্গে যেতে পারে বলে আশংকা করে প্রশাসনের নিকট দ্রুত মেরামতের জন্য দাবী জানিয়েছেনএলাকাবাসী।

জানতে চাইলে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হুমায়ূন কবীরজানান,বন্যার্তদের জন্য চালু করা হয়েছে ৪৩টি আশ্রয় কেন্দ্র,ত্রান হিসেবে পাওয়া গেছে-জি আর নগদ ২০ হাজার টাকা,জি আর চাল ৪০ মেঃ টন। এ ছাড়াও মজুদ রয়েছে-২০ হাজার টাকা ও ৩০ মেঃটন চাল। ইতিমধ্যে ৪টি ইউনিয়নে শুকনো খাবার ও ১০ কেজি করে চাল বিতরন করা হয়েছে।

 এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন র্বোড জামালপুরের উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী তৈমুর আহম্মেদ জানান,সরিষাবাড়ী পৌর সভার কোনাবাড়ী গ্রামে ঝিনাই নদীর পানি উন্নয়ন বোর্ড়ের বাধ কোনাবাড়ী সুইচ গেটের উত্তর পার্শ্বে বাধটি রক্ষায় ৪ হাজার ৯শত৩৫টি জিও ব্যাগ দেয়া হয়েছে। কাজও চলছে।তিনি আরও জানান আমরা তারাকান্দি- ভ’য়াপুর সড়কটি রক্ষায় পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে ঘাটাইল সেনা ক্যাম্পের জিওসি’র সাথে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব উদ্দিন আহমদ সহ স্খানীয় জনপ্রতিনিধি’র সাথে মতবিনিময় করেছি পিংনা খেয়াঘাট এলাকায়।

Leave a Reply

Top