You are here
Home > সারা বাংলা > জেলার খবর > সংবাদ কর্মীদের কাছে তিনটি দাবি জানিয়েছেন : মেয়র জাহাঙ্গীর আলম

সংবাদ কর্মীদের কাছে তিনটি দাবি জানিয়েছেন : মেয়র জাহাঙ্গীর আলম

 ইমন খানঃ

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র আলহাজ্ব এ্যাডঃ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সাংবাদিকদের কাছে তিনটি দাবি জানিয়েছেন। “অবকাঠামো উন্নয়ন ও রক্ষনাবেক্ষণ শীর্ষক”জনতার মুখোমুখি অনুষ্ঠানে সাধারণ মানুষের প্রশ্ন উত্তর পর্বে তিনি এদাবি জানান। প্রথম দাবিঃ রাজউক কিভাবে আসলো,তারা কিভাবে চলছে,গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনে এরিয়ায় তারা বাড়ি ঘর নির্মাণ করার প্লান কিভাবে দেয়,প্লান দেওয়ার নাম করে কোটি কোটি টাকা নিয়ে যাচ্ছে। সেই টাকায় গাজীপুর মানুষের ভবিষ্যতে কি উপকারে আসবে। মেয়র বলেন,এই বিষয়গুলো গনমাধ্যম ভাইয়েরা খতিয়ে দেখবেন। আগামী কিছুদিনের মধ্যে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন বাড়ি ঘর নির্মাণ করার প্লান দিবেন এবং অচিরেই (গাজুক) গাজীপুর উন্নয়ন কতৃপক্ষের আওতায় থাকবে। দ্বিতীয় দাবিঃ পল্লি বিদ্যুৎ বর্তমানে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের জন্য একটি কঠিন ব্যাধি হয়ে দাড়িয়েছে। মেয়র বলেন,পল্লি বিদ্যুৎ ঠিক মত সাপ্লাই দিতে পারে না,সিটি কর্পোরেশন এরিয়ায় এটা থাকতে পারবে না। তিনি আরো বলেন,এ ব্যাপারে আমি তাদের কে কয়েকবার চিঠি দিয়েছি,আমার কথা তাদের কানে ঠুকছে না, এ ব্যাপারে আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা চাই। অন্যথায় আমি মন্ত্রণালয়ে কথা বলে বিকল্প ব্যাবস্থা গ্রহন করবো। তৃতীয় দাবিঃ তিতাস গ্যাস,এটা মহামারী আকার ধারণ করছে,যে কোন মুহুর্তে জনগন আমাকে এর জবাব দিহীতা চাইবে। তারা ঠিক মত বিল উত্তোলন করে না,অবৈধ্য গ্যাস সংযোগ থেকে প্রতিমাসে বিল নিচ্ছে,অথচ তারাই বলতেছে অবৈধ গ্যাস সংযোগের কারণে বৈধ্যরা কোণঠাসায় আছে। মেয়র বলেন,কিছু কিছু এলাকায় ২৪ ঘন্টায় গ্যাস থাকে তিন ঘন্টা অথচ মোটা পাইপ দিয়ে গ্যাস সংযোগ ছিদ্র হয়ে অপছয় হচ্ছে,কোটি কোটি টাকা। এ ব্যাপারে আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা চাই।গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কে এম রাহাতুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সিটি মেয়র সমাপনি বক্তব্যে বলেন,জনগন আমাকে ভোট দিয়ে যে বিশ্বাস স্থাপন করেছে,আমি তার মুল্য রাখবো। মেয়র আরো বলেন,দেশরত্ম শেখ হাসিনার মাধ্যমে দেশে নতুন নতুন কাজ চলমান,আগামী ৫ বছরের মধ্যে গাজীপুর মহানগর সহ সারা দেশে উন্নয়ন মানুষের চোখে বিদ্যমান হয়ে থাকবে। এই সিটির ময়লা অার্বজনা ব্যাপারে ডাম্পিং স্টেশনের জন্য জমি বরাদ্দেের কাজ চলছে,অচিরেই এর সমাধান হবে।  এই শহর আপনার,আমার,সবার তাই সবাই মিলে এই শহর কে গ্রিণ ও ক্লিন সিটি হিবেসে গড়তে চাই।

Leave a Reply

Top