You are here
Home > সারা বাংলা > জেলার খবর > শ্রীপুরে ডাকাতি চেষ্টাকালে এলাকাবাসীর হাতে প্রাইভেট সহ আটক-১।

শ্রীপুরে ডাকাতি চেষ্টাকালে এলাকাবাসীর হাতে প্রাইভেট সহ আটক-১।


গাজীপুর প্রতিনিধি ঃ

গাজীপুরের শ্রীপুরে মাওনা গ্রামে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে ডাকাতির চেষ্টাকালে প্রাইভেটকার সহ এক ডাকাতকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী । ছিনতাইকারী সুমন মিয়া (২৭) ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা উপজেলার কুজরা গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে। মঙ্গলবার রাত তিনটায় উপজেলার মাওনা উত্তর পাড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মুক্তাদির হোসেনের বাড়ী থেকে প্রাইভেটকার ছিনতাইয়ের চেষ্টাকালে চালককে মারধর করে পালানোর সময় অন্য একটি ছিনতাইকরা প্রাইভেটকারসহ আটক করে স্থানীয়রা।
মুক্তিযোদ্ধা মুক্তাদির হোসেন বলেন, মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে আমার গাড়ীর ড্রাইভার রিপন বাড়ির গেইটের সামনে ৩/৪জন লোক আনাগোনা দেখে তাদের জিজ্ঞেস করে,পরিচয় জানতে চাইলে ডাকাতেরা রিপনকে রড দিয়ে এলোপাতারি মারপিট শুরু করে,পরে তার ডাকচিৎকারে আমরা এগিয়ে আসলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। পরে মাসুম আর আলী আজগর ড্রাইভার রিপনকে নিয়ে ডাকাতের পিছু নেয়। মাওনা অবদার মোড় নামকস্থানে গিয়ে ডাকাতদের প্রায়ভেটকার আটক করে,ডাকাতেরা তাদের গাড়ি থেকে তাদের দিকে গুলি ছোড়ে। পরে লোকজনের সহযোগিতায় এক ডাকাতকে ধরে ফেলে, অন্যরা পালিয়ে যায়। এসময় ডাকাতের গুলিতে আলী আজগর মৃধা (২৩),ও ড্রাইভার রিপন (৩৮) আহত হন। তাদের দু’জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে আনা হয়েছে।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম মোল্লা জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ছিনতাইকারীসহ একটি প্রাইভেটকার থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। ছিনতাইকাজে ব্যবহৃত প্রাইভেটকারটি ঢাকার ধামরাই উপজেলার উত্তরপাতা গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে ফিরোজ কবিরের। প্রায় আড়াই মাস আগে ৩/৪জন যাত্রী সেজে শ্রীপুরের তেলিহাটি এলাকায় যাওয়ার জন্য তার প্রাইভেটকার ভাড়া নেয়। পরে ওই এলাকার শিশু পল্লী রোডে চালক হৃদয়কে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো-৩১-০৭০৬) থেকে ফেলে দিয়ে গাড়ী নিয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় প্রাইভেটকার মালিক অজ্ঞাত ছিনতাইকারীদের নামে শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করেছিলো।

Leave a Reply

Top