শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত। – Live News BD, The Most Read Bangla Newspaper, Brings You Latest Bangla News Online. Get Breaking News From The Most Reliable Bangladesh Newspaper; livenewsbd.co
You are here
Home > সারা বাংলা > জেলার খবর > শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত।

শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত।

মোঃআরিফ মৃধাঃ

আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলার ফাঁসির রায় দ্রুত কার্যকর সহ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী পালন করা হয়েছে। ১৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে দিনব্যাপী কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকালে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের হায়দারাবাদে তার কবরে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ ও শ্রদ্ধা নিবেদন।পবিত্র কোরআনখানি,কালো ব্যাচ ধারন, আলোচনা সভা,  দোয়া ও মিলাদ মাহফিল এবং তবারক বিতরণ করা হয়।মঙ্গলবার সকালে আওয়ামী লীগের শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, মেহের আফরোজ চুমকি এমপি, গাজীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আখতারুজ্জামান, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এডঃআজমত উল্লাহ খান,সিটি মেয়র ও আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডঃ জাহাঙ্গীর আলম সহ নেতৃবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থত ছিলেন। এছাড়াও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর, প্রো ভাইস চ্যান্সেলর, কাপাসিয়া  উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আমানত হোসেন খান টঙ্গী প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ গাজীপুর প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ সহ বিভিন্ন এলাকার আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতা কর্মীরা পুষ্পার্ঘ অর্পণ ও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এদিকে বাদ আসর টঙ্গীতে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের পক্ষ থেকে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। স্মরণ সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন ২০০৪ সালের ৭ মে বিএনপি-জামাত জোট সরকারের মদদপুষ্ট একদল সন্ত্রাসী নোয়াগাঁও এম এ মজিদ মিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এক জনসভায় প্রকাশ্য দিবালোকে  জনপ্রিয় সংসদ সদস্য  আহসান উল্লাহ মাষ্টারকে  গুলি করে হত্যা করে। আজ পর্যন্ত এ  হত্যা মামলার রায় কার্যকর হচ্ছে না। অবিলম্বে হত্যা মামলার রায় কার্যকর করার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানান তারা।শহীদ  আহসান উল্লাহ মাস্টারের বড় ছেলে  ও স্মৃতি পরিষদ এর প্রধান পৃষ্ঠপোষক যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি তার পিতার ১৫তম শাহাদাত বার্ষিকী কর্মসূচিতে গ্রামের বাড়ি হায়দারাবাদ, টঙ্গী ও গাজীপুরের বিভিন্ন এলাকায় আওয়ামী লীগ, শ্রমিক লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতা কর্মীসহ সকল স্তরের মানুষকে অংশগ্রহণ করার জন্য কৃতজ্ঞতা জানান।

Leave a Reply

Top