You are here
Home > আন্তর্জাতিক > রোহিঙ্গাদের ৪০ শতাংশ গ্রাম একেবারে জনমানব শূন্য

রোহিঙ্গাদের ৪০ শতাংশ গ্রাম একেবারে জনমানব শূন্য

অনলাইন ডেস্ক :

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত ৪০ শতাংশ গ্রাম এখন একেবারে জনমানব শূন্য। মিয়ানমার সরকারের এক মুখপাত্র আজ বৃহস্পতিবার মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএনকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

জাতিসংঘের তথ্য মতে, গত ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমার সেনা, পুলিশ ও বৌদ্ধ সন্ত্রাসীদের দমন-পীড়নের শিকার হয়ে তিন লাখ ৭০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের অধিকাংশই নারী ও শিশু।

মিয়ানমার প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের মুখপাত্র জাও তা দাবি করেন, সন্ত্রাসী কার্যক্রমে সম্পৃক্ত এমন ব্যক্তিরা তাদের পরিবারের সদস্যদের বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যেতে বলেছে।

এক ইমেইল বার্তায় জাও তা সিএনএনকে বলেন, ‘তাদের(রোহিঙ্গা) কিছু সরাসরি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত, আর বাকিরা সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোকে সমর্থন করে। অনেকে গ্রেপ্তার এড়াতে পালিয়ে যাচ্ছে। কারণ তাদের সঙ্গে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর যোগসূত্র রয়েছে।’

মিয়ানমার সরকার জানায়, রোহিঙ্গা অধ্যুষিত ৪৭১টি গ্রামের মধ্যে ১৭৬টি অর্থাৎ ৩৭.৪ শতাংশ গ্রাম এখন একদম খালি। আরও ৩৪টি গ্রাম আংশিকভাবে জনমানব শূন্য হয়েছে।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, রাখাইনে এখন পর্যন্ত এক হাজারের বেশি ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে। নিহতদের অধিকাংশই রোহিঙ্গা মুসলিম।

মিয়ানমারে প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা বাস করে। দেশটির উত্তরাঞ্চলের রাখাইন রাজ্যের বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত সংলগ্ন দুর্গম গ্রামে বাস করে তারা।

রাখাইনের কয়েকটি পুলিশ ফাঁড়ি ও তল্লাশিচৌকিতে গত ২৫ আগস্ট রাতে সন্ত্রাসী হামলা হয়। এর জেরে সেখানে নতুন করে সহিংস সেনা অভিযান শুরু হয়। মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনী নিরস্ত্র রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ-শিশুদের ওপর নির্যাতন ও হত্যাযজ্ঞ চালাতে থাকে।

Leave a Reply

Top