You are here
Home > নারী ও শিশু > রানির মতোই রানীর হৃদয়

রানির মতোই রানীর হৃদয়

বিনোদন ডেস্ক :

রানীর হৃদয় সত্যিই রানির মতো। আর তার প্রমাণ মিলল ‘হিচকি’ চলচ্চিত্রের শুটিংয়ের পর। শুটিং শেষে বলিউড অভিনেত্রী তথা প্রযোজক-পরিচালক আদিত্য চোপড়ার স্ত্রী রানী মুখার্জি ‘হিচকি’ চলচ্চিত্রের সব কলাকুশলী ও সদস্যের হাতে তুলে দিলেন দামি উপহার।

বলিউডে এবার দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করতে চলেছেন রানী। এখানে তিনি শেষ ছবিটি করেন ২০১৪ সালে। এর নাম ছিল ‘মারদানি’। সেখানে তাঁকে দেখা গিয়েছিল পুলিশ অফিসারের চরিত্রে। যশরাজ ব্যানারের ‘হিচকি’র মাধ্যমে আবার হিন্দি চলচ্চিত্র জগতে ফিরছেন বলিউডের রানী। মেয়ে আদিরা জন্মের পর এটাই তাঁর বলিউডে প্রত্যাবর্তনের প্রথম ছবি। ছোট আদিরা বলিউড সুন্দরীর কোলে আসার পরপরই তিনি এই ছবিটির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন। তাই মা হিসেবে রানীর এটা প্রথম কাজ। ছবিটির সঙ্গে জড়িয়ে আছে তাঁর অনেক আবেগ, অনেক ভালোবাসা। মূলত নারীশক্তির মহিমা নিয়েই সিদ্ধার্থ পি মালহোত্রা পরিচালিত ‘হিচকি’ চলচ্চিত্রটি। এর মূল বক্তব্য, একজন নারীর দুর্বল দিকই একসময় তার প্রকৃত শক্তি হয়ে দাঁড়ায়। প্রযোজক মনীশ শর্মার এটি তাঁর তৃতীয় ছবি। এর আগে তিনি একই ব্যানারে ‘দম লাগা কে হ্যাঁয়সা’ ও ‘মেরি প্যারি বিন্দু’ ছবি দুটি প্রযোজনা করেছেন।
গত এপ্রিল মাসে ‘হিচকি’ ছবির শুটিং শুরু হয়। মাত্র দিন কয়েক আগে ছবিটির শুটিং শেষ হয়। রানী মনে করেন, কলাকুশলী ও সদস্যদের অদম্য উৎসাহ ও নিরলস প্রচেষ্টায় সময়মতো এ ছবি নির্মাণের কাজ শেষ করা গেছে। তাই তাঁদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করতে অভিনব পন্থা নেন বলিউড সুন্দরী। কলাকুশলী ও সদস্যদের হাতে দামি এবং অত্যন্ত রুচিশীল উপহার তুলে দেন। রানীর এই সৌজন্যতায় সবা ভীষণই খুশি হন। এবার দেখা যাক, বলিউড অভিনেত্রীর ‘হিচকি’ দর্শককে কতটা খুশি করতে পারে।

Leave a Reply

Top