You are here
Home > সারা বাংলা > জেলার খবর > রাজাপুরে সড়ক ও সবুজ বেষ্টুনীর গাছে মড়ক লেগেছে,মরে যাচ্ছে শত শত গাছ,বন বিভাগের কোন তদারকি নেই

রাজাপুরে সড়ক ও সবুজ বেষ্টুনীর গাছে মড়ক লেগেছে,মরে যাচ্ছে শত শত গাছ,বন বিভাগের কোন তদারকি নেই

জাকির সিকদার,রাজাপুর(ঝালকাঠি)প্রতিনিধি ঃ

ঝালকাঠির রাজাপুরে সড়ক ও সবুজ বেষ্টুনির গাছে অজ্ঞাত মড়ক লেগেছে,ফলে শত শত মূল্যবান গাছ মরে যাচ্ছে।বন-বিভাগের কোন তদারকি নেই বলে অভিযোগ করেন রাজাপুর উপজেলার বড়ইয়া ও মঠবাড়ি ইউনিয়নের জন সাধারন।

বিপুল পরিমান সরকারি অর্থে সবুজ বেষ্টুনির ও সড়কের এ গাছগুলো ১৫ বছর আগে রোপন করা হয়। পরিচর্যার অভাবে অজ্ঞাত রোগে গাছ গুলো মরে যাচ্ছে,সঠিক তদারকি হচ্ছে না বলে স্থানীয় জনসাধারন জানান। মূল্যবান আকাশমনি,মেহগনি ও নিম গাছ শুধু পরিবেশের ভারসম্য রক্ষা করেনা,মানুষের উপকার ও দেশের বনজ সম্পদ বৃদ্ধি করে।

উদ্ভিদ বিশেষজ্ঞদের মতে নিম ও মেহগনি গাছ মানুষের বহু রোগ থেকে করে। সড়ক ও জনপদের প্রকৌশলী মোঃ লুৎফর রহমান জানান,গাছগুলো শুধু পরিবেশ রক্ষা করেনা সড়কও স্থায়ীভাবে বাঁচিয়ে রাখে। সড়কের দু’পাশের রোপনকৃত গাছগুলোর শিকড় সড়কের নীচ থেকে ছড়িয়ে সড়ককে শক্ত রাখে। প্রতি বছর সড়ক ও সবুজ বেষ্টুনির শত শত মূল্যবান গাছ মরে যাচ্ছে বন বিভাগের অবহেলার কারনে।

রাজাপুর উপজেলা বন বিভাগের কর্মকর্তার সঙ্গে এব্যাপারে আলাপ করতে তিন দিন গিয়েও তাকে কর্মস্থলে ও ফোনে পাওয়া যায়নি। কলেজ অধ্যক্ষ সৈয়দ মোঃ বেলায়েত হোসেন জানান,এভাবে প্রতি বছর গাছ গুলো মারা গেলে এক সময় শূন্য হয়ে পরবে ছায়া ঘেরা সবুজ বেষ্টুনি।এছাড়া পরিবেশের ভারসম্য হারাতে পারে।

এছাড়া দেশের বনজ সম্পদ বিলুপ্ত হতে পারে। স্থানীয় জনগন সড়ক ও সবুজ বেষ্টুনির গাছগুলো মারা যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করার জন্য বন বিভাগের উর্ধতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Leave a Reply

Top