You are here
Home > দূরনীতি ও অপরাধ > রংপুরে মেয়রের ওপর হামলা, যুবক আটক

রংপুরে মেয়রের ওপর হামলা, যুবক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র সরফুদ্দীন আহমেদ ঝন্টুর ওপর হামলা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তিনি সামান্য আহত হয়েছেন। পরে স্থানীয় লোকজন হামলাকারী যুবককে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন।

আজ রোববার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে শহরের গুপ্তাপাড়ায় অবস্থিত মেয়রের বাসভবনের সামনের আসবাবের দোকানে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শহরের গুপ্তাপাড়া মোড় এলাকায় মেয়রের বাসার সামনে একটি আসবাবের দোকানে বসেছিলেন মেয়র। কথা বলার সময় হঠাৎ এক যুবক তাঁর ওপর হামলা করেন। তিনি মেয়রের ফতুয়া টেনে ছিঁড়ে ফেলেন এবং কিল-ঘুষিও মারেন।

অতর্কিত এ ঘটনায় অপ্রস্তুত হয়ে যান মেয়র। তিনি তেমন প্রতিরোধ করতে পারেননি। এ সময় তাঁর দেহরক্ষীরা কিছুটা দূরে অবস্থান করছিলেন। ঘটনা দেখার পর তাঁরা ছুটে আসেন এবং সেখানে উপস্থিত মানুষ হামলাকারী যুবককে ধরে পুলিশে খবর দেন।

পরে পুলিশ এসে ওই যুবককে আটক করে নিয়ে যায়। পুলিশ ওই যুবকের পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি। কেন হামলা হয়েছে, সেটাও তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেনি পুলিশ।

রংপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ বি এম জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘এ ঘটনায় শহরের সিও বাজার বুড়িরহাট এলাকার আবদুল গফুরের ছেলে সাদ্দাম আলী (২২) নামের এক যুবককে আটক করা হয়েছে। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। আমরা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছি। ওই যুবক কেন হামলা করেছেন, এর কারণ বের করার চেষ্টা চলছে।’

উদ্ভূত এ ঘটনার পর মেয়র সরফুদ্দীন আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘এক যুবক আমার সঙ্গে দেখা করতে এসে হঠাৎ বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে। বিতর্কের একপর্যায়ে আমার পরনের ফতুয়া টেনে ছিঁড়ে ফেলে। আমি হতভম্ব হয়ে যাই।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমার জনপ্রিয়তা কমাতে এ হামলা হতে পারে বলে ধারণা করছি। যেহেতু সামনে সিটি করপোরেশন নির্বাচন। হামলার এ ঘটনাটি ছোট করেও দেখছি না। প্রকৃত ঘটনা পুলিশকে তদন্ত করার জন্য জানিয়েছি।

Leave a Reply

Top