You are here
Home > আন্তর্জাতিক > যুক্তরাষ্ট্রের ‘নতুন ওবামা’ আল-সাঈদ

যুক্তরাষ্ট্রের ‘নতুন ওবামা’ আল-সাঈদ

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ আগামী নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান অঙ্গরাজ্যের গভর্নর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে যাচ্ছেন তরুণ রাজনীতিক আবদুল আল-সাঈদ। অল্প বয়স আর প্রতিভার বিচ্ছুরণের কারণে যিনি ইতোমধ্যেই খেতাব পেয়েছেন ‘নতুন ওবামা’ হিসেবে। কেবল গভর্নর পদেই জয়ী হতে চান না, খোদ আমেরিকার রাজনীতিতেই পরিবর্তন আনতে চান আল-সাঈদ। মিসরীয় অভিবাসী বাবা ও ধর্মান্তরিত মার্কিন মায়ের সন্তান আল সাঈদের বিশ্বাস, তিনিই হবেন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ ও প্রথম মুসলিম মেয়র। সা¤প্রতিক সময়ে বিভিন্ন অস্থির পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে চলা যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে একটি যুগান্তকারী পরিবর্তন আনাই লক্ষ্য এই তরুণ রাজনীতিকের।

৩২ বছর বয়সী আল সাঈদ এখন পর্যন্ত জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের রোডস শিক্ষাবৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি। প্রতি বছর ৫০টি রাজ্যের মাত্র ৩২ জন শিক্ষার্থীকে এই বৃত্তি দেয় সরকার। অধ্যাপনা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ে, কাজ করেছেন মিশিগানের ডেট্রয়েট শহরের স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক হিসেবে। মিশিগানের গভর্নর নির্বাচনের প্রার্থী বাছাইপ্রক্রিয়া শুরু হবে আগামী বছর। তবে এখন থেকেই নিজের প্রার্থিতার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী এই তরুণ মুসলিম রাজনীতিক।

মুসলিম পরিচয় যুক্তরাষ্ট্রের সেকুলার সমাজব্যবস্থার সাথে সাংঘর্ষিক হবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে আল সাঈদ জানান, তিনি যেমন নিজের ধর্মীয় বিশ্বাসকে শ্রদ্ধা করেন, তেমনি অন্যদের বিশ্বাসকেও। তিনি বলেন, ‘আমি একজন মুসলিম, তাই প্রতিদিন ৩৪ বার সেজদা করি। আমি চাইব আমার এই অধিকার কেউ কেড়ে নিতে পারবে না। আবার অন্য কারো অধিকারও আমি কেড়ে নেবো না।’ সাবেক প্রেসিডেন্ট জন এফ কেনেডির ক্যাথলিজম চর্চার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, রাষ্ট্র ও উপাসনালয় দুই পৃথক সত্তা।

Leave a Reply

Top