You are here
Home > আন্তর্জাতিক > ভারতকে টেক্কা দিতে সীমান্তে আরও উঁচু পতাকা পাকিস্তানের

ভারতকে টেক্কা দিতে সীমান্তে আরও উঁচু পতাকা পাকিস্তানের

অনলাইন ডেস্কঃ ভারত-পাকিস্তানের ওয়াঘা সীমান্তে চার মাস আগে ৩৫০ ফুট উঁচু পতাকা উড়িয়েছিল ভারত। এবার ওয়াঘায় নিজেদের দেশের জাতীয় পতাকা ওড়ানোর প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পাকিস্তান। ভারতের জাতীয় পতাকা যেখানে ৩৫০ ফুট উঁচুতে লাগানো, সেখানে পাকিস্তান তাদের পতাকা ৪০০ ফুট উঁচুতে উড়ানোর  সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
যদিও ইতিমধ্যে প্রচণ্ড হাওয়ার কারণে চারবার ভারতের জাতীয় পতাকার ক্ষতি হয়েছে, তা সত্ত্বেও পাকিস্তানের তরফ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
পাক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, এর জন্য ইতিমধ্যে তোড়জোড় শুরু হয়ে গেছে। ওই অঞ্চলটি পরিষ্কার রাখতে গাছপালা কাটাও শুরু হয়েছে। কাজটি সম্পন্ন হলে সেটি বিশ্বের অষ্টম উচ্চতম পতাকা হবে।
এর আগে চলতি বছরের ৫ মার্চ ওয়াঘা সীমান্তে ৩৫০ ফুট উঁচু পতাকা উড়িয়েছিল ভারত। যা কিনা লাহোর থেকেও দৃশ্যমান ছিল। কিন্তু কয়েকদিনের মধ্যেই ঝোড়ো হাওয়ার কারণে সেটি ছিঁড়েও যায়। একবার নয়, এখন পর্যন্ত মোট পাঁচবার পতাকা বদলাতে হয়েছে। এমনকী সীমান্তে গত তিনমাস পতাকাই নেই। শুধু তাই নয়, পাক সেনার সঙ্গে দৈনিক ‘বিটিং দ্য রিট্রিট’ অনুষ্ঠানের সময় ভারতের জাতীয় পতাকা খুলেও পড়ে যায়। যা অবশ্যই একটি অপমানজনক ঘটনা।
বিএসএফ-এর সাবেক কর্মকর্তা ডি এস সরন-এর মতে, ‘কয়েকমাস আগে ভারত সীমান্তে সবচেয়ে উঁচু পতাকা উড়িয়েছে। আর সে কারণেই পাকিস্তানও এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে। যেহেতু তাদের পতাকা অনেক নিচে রয়েছে, তাই সম্মানের খাতিরেই ভারতের থেকে বেশি উঁচুতে পতাকা ওড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাক প্রশাসন। এর পিছনে কোন প্রশাসনিক কারণ নেই। ’ভারত-পাকিস্তানের ওয়াঘা সীমান্তে চার মাস আগে ৩৫০ ফুট উঁচু পতাকা উড়িয়েছিল ভারত। এবার ওয়াঘায় নিজেদের দেশের জাতীয় পতাকা ওড়ানোর প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পাকিস্তান। ভারতের জাতীয় পতাকা যেখানে ৩৫০ ফুট উঁচুতে লাগানো, সেখানে পাকিস্তান তাদের পতাকা ৪০০ ফুট উঁচুতে উড়ানোর  সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যদিও ইতিমধ্যে প্রচণ্ড হাওয়ার কারণে চারবার ভারতের জাতীয় পতাকার ক্ষতি হয়েছে, তা সত্ত্বেও পাকিস্তানের তরফ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, এর জন্য ইতিমধ্যে তোড়জোড় শুরু হয়ে গেছে। ওই অঞ্চলটি পরিষ্কার রাখতে গাছপালা কাটাও শুরু হয়েছে। কাজটি সম্পন্ন হলে সেটি বিশ্বের অষ্টম উচ্চতম পতাকা হবে। এর আগে চলতি বছরের ৫ মার্চ ওয়াঘা সীমান্তে ৩৫০ ফুট উঁচু পতাকা উড়িয়েছিল ভারত। যা কিনা লাহোর থেকেও দৃশ্যমান ছিল। কিন্তু কয়েকদিনের মধ্যেই ঝোড়ো হাওয়ার কারণে সেটি ছিঁড়েও যায়। একবার নয়, এখন পর্যন্ত মোট পাঁচবার পতাকা বদলাতে হয়েছে। এমনকী সীমান্তে গত তিনমাস পতাকাই নেই। শুধু তাই নয়, পাক সেনার সঙ্গে দৈনিক ‘বিটিং দ্য রিট্রিট’ অনুষ্ঠানের সময় ভারতের জাতীয় পতাকা খুলেও পড়ে যায়। যা অবশ্যই একটি অপমানজনক ঘটনা। বিএসএফ-এর সাবেক কর্মকর্তা ডি এস সরন-এর মতে, ‘কয়েকমাস আগে ভারত সীমান্তে সবচেয়ে উঁচু পতাকা উড়িয়েছে। আর সে কারণেই পাকিস্তানও এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে। যেহেতু তাদের পতাকা অনেক নিচে রয়েছে, তাই সম্মানের খাতিরেই ভারতের থেকে বেশি উঁচুতে পতাকা ওড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাক প্রশাসন। এর পিছনে কোন প্রশাসনিক কারণ নেই। ’

Leave a Reply

Top