You are here
Home > জাতীয় > ব্যাংক থেকে অর্থ উত্তোলনের পর ডিবি পরিচয়ে ডাকাতি

ব্যাংক থেকে অর্থ উত্তোলনের পর ডিবি পরিচয়ে ডাকাতি

স্টাফ রিপোর্টারঃ রাজধানীর দক্ষিণ যাত্রাবাড়ীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ভুয়া ডিবি পরিচয়দানকারী ১২ জনকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। আসামিরা ব্যাংক থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ উত্তোলনকারীদের অনুসরণ করে এবং সুযোগ বুঝে ডিবি পরিচয়ে তাদের অর্থ ছিনিয়ে নেয়।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে মো. বারেক মিয়া, গফফার আহমেদ, মনির হোসেন, রাসেল বর্ষ ওরফে বর্ষা, আল-আমিন ওরফে দিপু, মোর্শেদ ওরফে মিন্টু, সবুজ হোসেন শ্যামল, ওরনি আলম ওরফে ওরনী, রিয়াজ, মেহেদি হাসান ওরফে মেহেদি, ড্রাইভার নাজমুল হাসান ওরফে এরশাদ ও আরমান হোসেন।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবির যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দু-তিনটা ছোট দলে বিভক্ত হয়ে কেউ ব্যাংকে অবস্থান করে টাকা উত্তোলনকারী গ্রাহকদের সম্পর্কে ব্যাংকের বাইরে অবস্থানকারী দলের কাছে তথ্য দেয়। ব্যাংকের বাইরে থাকা দল গ্রাহকদের অনুসরণ করে এবং গাড়িতে থাকা দলকে সুবিধা মতো জায়গায় থাকতে বলে।

তারা ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলনকারীদের অনুসরণ করে, সুবিধাজনক স্থানে যাওয়ার পর ডাকাত দল তাদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে জোর করে গাড়িতে তুলে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে।

এরপর বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে চোখ বেঁধে ফেলে। পরে মুখে স্কচটেপ পেঁচিয়ে গাড়ি নিয়ে ঢাকা শহরের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে থাকে। ভিকটিমের কাছে থাকা টাকা ও অন্যান্য মালামাল নিয়ে তাকে চোখ বাঁধা অবস্থায় অথবা চোখে মলম লাগিয়ে সুবিধামতো জায়গায় নামিয়ে দেয় বলে জানান আবদুল বাতেন।

মঙ্গলবার সকালে এক ক্ষুদে বার্তায় ১৩ ডাকাত গ্রেফতারের কথা বললেও সংবাদ সম্মেলনে এই সংখ্যা ১২ বলে উল্লেখ করা হয়। গ্রেফতারের সময় আসামিদের কাছ থেকে দুটি পিস্তল, ছয় রাউন্ড গুলিভর্তি দুটি ম্যাগাজিন, একটি কাঠের লাঠি, একটি প্লাস্টিকের তৈরি কালো রঙের ওয়াকিটকিসদৃশ বস্তু, দুটি হ্যান্ডকাপ, দুটি স্টেনলেস স্টিলের ধারালো চাকু, একটি চওড়া স্কচটেপ, একটি গামছা, একটি ডিবি জ্যাকেট এবং একটি নোহা মাইক্রোবাস উদ্ধার করে ডিবি।

আবদুল বাতেন জানান, গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে আরও জানা যায় যে, গত ৬ জুলাই ব্র্যাক ব্যাংক ধোলাইপাড় শাখা থেকে ৫ লাখ ৩৬ হাজার টাকা এবং একটি স্যামসাং মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়ার কথা স্বীকার করেছে তারা। ডাকাত মো. বারেক মিয়ার স্বীকরোক্তি মোতাবেক তার স্ত্রী সাম্মী আক্তারের হেফাজত থেকে ১ লাখ ১৬ হাজার টাকা উদ্ধার করেছে ডিবি।

Leave a Reply

Top