You are here
Home > সারা বাংলা > সড়ক দূর্ঘটনা > বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বাড়ছে

বিভিন্ন নদ-নদীর পানি বাড়ছে

দেশের বিভিন্ন নদ-নদীর ৮০টি স্থানে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এর মধ্যে তিনটি স্থানে পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অন্যদিকে ১০টি স্থানে নদ-নদীর পানি হ্রাস পেয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ শুক্রবার এ কথা জানানো হয়েছে।

ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, গঙ্গা-পদ্মা এবং সুরমা নদীগুলোর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর মধ্যে আগামী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্রহ্মপুত্র-যমুনা ও গঙ্গা-পদ্মা নদীগুলোর পানি বৃদ্ধি আগামী ৭২ ঘণ্টা এবং সুরমা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে।

তবে কুশিয়ারা নদীর পানি সমতলে হ্রাস পাচ্ছে, যা আগামী ২৪ ঘণ্টায় স্থিতিশীল হয়ে যেতে পারে।

সুরমা নদীর দুটি পয়েন্ট কানাইঘাট ও সুনামগঞ্জ এবং যদুকাটা নদীর লরেরগড় পয়েন্টে পানি সমতলে বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। কানাইঘাটে ২৭ সেন্টিমিটার, সুনামগঞ্জে ৪৭ সেন্টিমিটার এবং লরেরগড়ে ১১৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

এদিকে আজ শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।

আজ আবহাওয়া অধিদপ্তরের সর্বশেষ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। এতে আরো বলা হয়েছে, আগামী ৭২ ঘণ্টায় (তিন দিন) বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়া চিত্রের সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়েছে, মৌসুমি বায়ুর বর্ধিতাংশের অক্ষ পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

Leave a Reply

Top