You are here
Home > জাতীয় > বিএমএসএফ’র গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগি আইন প্রণয়ন সময়ের দাবি

বিএমএসএফ’র গোলটেবিল বৈঠকে বক্তারা সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগি আইন প্রণয়ন সময়ের দাবি

সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগি আইন প্রণয়ন সময়ের দাবি বলে গোলটেবিল বৈঠকে মন্তব্য করেছেন বক্তারা। বুধবার বিকেলে রাজধানীর পুরানা পল্টনস্থ মুক্তিভবনে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) ‘দেশে অব্যাহত সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগি আইন প্রণয়নের দাবিতে গোলটেবিল বৈঠকে ও বার্ষিক ইফতার’ অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট নারীনেত্রী ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি তানিয়া রব।

বিএমএসএফ’র কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি শামসুল আলম নিক্সনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বিশেষ অতিথি ছিলেন ফেডারেশন অব জার্নালিষ্ট এসোসিয়েন বাংলাদেশ’র সদস্য ও জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার সভাপতি নুরুল ইসলাম, নতুনধারা বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী, ভাইস চেয়ারম্যান, বিএমএসএফ’র আইন উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট কাওসার হোসাইন, বিশিষ্ট নাট্যভিনেতা যুবরাজ খান বিভিন্ন সাংবাদিক ও সুশীল সমাজ নেতৃবৃন্দ।

প্রধান বক্তা বিএমএসএফ’র সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফর তার বক্তব্যে সংগঠনের পক্ষে বলেন, দেশে অব্যাহত সাংবাদিক নির্যাতনের চিত্র ভয়াবহ। সম্প্রতি সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে দৈনিক যুগান্তরের ষ্টাফ রিপোর্টার হাবিব সারোয়ার আজাদকে এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতন সমর্থকরা মারধর করে ৩৪৫ পিস ইয়াবাসহ পুলিশে সোপর্দ করে।

পুলিশ ২৭ ঘন্টা পর ওই নির্দোষ সাংবাদিককে থানা থেকেই ছেড়ে দিতে বাধ্য হন। রাজশাহীর সাংবাদিক বিশাল রহমানকে সার্জেন্ট তল্লাসির নামে উলঙ্গ করে শ্লীলতাহানী করে যাতে গোটা সাংবাদিক সমাজই লজ্জিত। এর কিছুদিন পর রাজশাহী প্রেসক্লাব সেক্রেটারীকে অকথ্য মারধর করে পুলিশ। সম্পতি বরিশালে সুমন হাসান নামে এক ফটো সাংবাদিককে ডিবি পুলিশ পিটিয়ে রক্তাক্ত আহত করেছিল। যার ফলে দেশের সাংবাদিকরা ক্ষোভে ফেটে পড়ে।

এরকম প্রতিনিয়ত পুলিশ কিংবা রাজনৈতিক সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা দেশের কোথাও না কোথাও সাংবাদিক নির্যাতন ও হয়রাণী করা হচ্ছে। সাংবাদিক নির্যাতনে সুস্পষ্ট কোন আইন না থাকায় প্রতিনিয়ত হামলা ও হয়রাণীর শিকার হচ্ছে। তাই সাংবাদিক নির্যাতন বন্ধে যুগোপযোগি আইন প্রণয়ন সাংবাদিকদের প্রানের দাবিতে পরিনত হয়েছে। অবিলম্বে সরকারকে একটি আইন প্রণয়নের দাবি করা হয়।

বৈঠকে বক্তব্য রাখেন রংপুরের সমন্বয়কারী ও স্থায়ী কমিটির সদস্য শাহ আলম শাহী, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক হোসেন, মালয়েশিয়া কমিটির আহবায়ক এম আবির হাসান,সংগঠনের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও গাজিপুরের সাধারণ সম্পাদক হামিদ খান, সংগঠনের স্থায়ী কমিটির সদস্য জসিম মাহমুদ, স্থায়ী কমিটির সদস্য জালাল উদ্দিন জুয়েল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আহাদ, হুসাইন আহমেদ কবীর, কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক সোনিয়া সরকার, কেন্দ্রীয় সদস্য কামাল হোসেন,কেন্দ্রীয় সদস্য মাজনুন মাসুদ, ঢাকা জেলা কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক লোকমান হোসেন, বগুড়ার সাংবাদিক নান্নু মিয়া, আতিকুর রহমান ও সদস্য মোনালিসা ইভা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সভায় বিএমএসএফ’র প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক আহমেদ আবু জাফরের মাতা হাজেরা খাতুনের প্রথম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া মোনাজাত করা হয়।

Leave a Reply

Top