You are here
Home > জাতীয় > প্রধানমন্ত্রী কওমি মাদ্রাসাকে স্বীকৃত শিক্ষা হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন: কৃষিমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী কওমি মাদ্রাসাকে স্বীকৃত শিক্ষা হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন: কৃষিমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টারঃ কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, শিক্ষাব্যবস্থার সঙ্গে কওমি মাদ্রাসার এত দিন একটা পার্থক্য ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কওমি মাদ্রাসাকে একটি স্বীকৃত শিক্ষা হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। আর সে অনুযায়ী কাজ হচ্ছে।

ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আজ শনিবার বেলা ১১টায় শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় গোল্লারপাড় মদিনাতুল উলুম কওমি মাদ্রাসা ও এতিমখানা মাঠে গরিব-দুস্থদের মাঝে কাপড় বিতরণ অনুষ্ঠানে এক বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী একদিকে যেমন দেশের মানুষের সেবা করছেন, অন্যদিকে বিদেশে বাংলাদেশের সুনাম বাড়াচ্ছেন। তিনি মুসলিম দেশগুলোর ভেতর শান্তি আনতে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে সফর করছেন। তবে আমাদের দেশ, মধ্যপ্রাচ্যসহ অনেক দেশেই জঙ্গিবাদের উত্থান হচ্ছে। এরা ধর্মের নামে, ইসলামের নামে মানুষ খুন করে। ধ্বংসযজ্ঞ চালায়। ইসলাম শান্তির ধর্ম, ইসলাম মানুষের সেবা করার ধর্ম।

মতিয়া চৌধুরী আরও বলেন, ‘রাসুল (সা.) বিদায় হজে বলেছিলেন, সাবধান, ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি কোরো না। ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করতে গিয়ে অতীতে অনেক ধর্ম নষ্ট হয়ে গেছে। কিন্তু ইসলাম এখনো ঠিকে আছে। কারণ, ইসলাম শান্তি, সাম্য ও মৈত্রীর বাণী নিয়ে আসে। তবে আফসোস, পশ্চিমা দেশগুলো মুসলমান দেশগুলোতে এজেন্ট ঢুকিয়ে দিচ্ছে। আর এই এজেন্টরা এসে আমাদের জঙ্গিবাদের দিকে ঠেলে দিচ্ছে।’

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘পশ্চিমা দেশের এজেন্টরা আমাদের বলল আর আমাদের মাথা গরম হয়ে গেল, কেন? আমাদের তো ভালো-মন্দ বিচার করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা আছে। এই যে পাকিস্তানের মসজিদে ও মাজারে বোমা বিস্ফোরণ ঘটানো হচ্ছে, এটা কি ঠিক?’

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল ও কৃষিমন্ত্রীর নিজস্ব অর্থে উপজেলার চারটি ইউনিয়নের ২৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অষ্টম ও নবম শ্রেণির ২২৫ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে জামা, গরিব ও দুস্থদের মাঝে ১ হাজার ২০০ শাড়ি, ৪০০ শার্ট ও ৪০০ প্যান্ট বিতরণ করা হয়।

কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে এ সময় জেলা প্রশাসক (ডিসি) মল্লিক আনোয়ার হোসেন, পুলিশ সুপার (এসপি) মো. রফিকুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম মুখলেছুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তরফদার সোহেল রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. জিয়াউল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Top