You are here
Home > খেলাধুলা > প্রত্যাশিত পারিশ্রমিক পাই না : মুশফিক

প্রত্যাশিত পারিশ্রমিক পাই না : মুশফিক

ক্রীড়া প্রতিবেদক :

বিসিবি ক্রিকেটারদের বেশির ভাগ দাবি মেনে নেওয়ায় ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়। কিন্তু এই বিপিএলে সেই পুরোনো বৈষম্য কিন্তু থেকেই গেছে। ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরির খেলোয়াড়দের কথাই ধরুন। এবার নিলামে এ প্লাস ক্যাটাগরিতে বাংলাদেশের ক্রিকেটার ছিলেন চারজন—মাশরাফি বিন মুর্তজা, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ। বিসিবি প্রত্যেকের পারিশ্রমিক ঠিক করে দিয়েছে ৫০ লাখ টাকা। যে ১১ জন বিদেশি খেলোয়াড় ছিলেন একই শ্রেণিতে, তাঁদের পারিশ্রমিক ১ লাখ ডলার (বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৮৫ লাখ টাকা)।

এ প্লাস ক্যাটাগরিতেই স্থানীয় ও বিদেশি খেলোয়াড়দের পারিশ্রমিকে পার্থক্যটা প্রায় ৩৫ লাখ টাকা। মুশফিকের আপত্তি এখানেই। খুলনা টাইগার্সের হয়ে এই বিপিএল খেলা বাংলাদেশ দলের অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান আজ সাংবাদিকদের বললেন, ‘আমরা সব সময় প্রত্যাশিত পারিশ্রমিক পাই না। এবার সবকিছু অনেক দ্রুত হয়েছে। টুর্নামেন্ট হচ্ছে সেটাই অনেক। আমরা নীতিনির্ধারকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছি, তাঁরা সেভাবে আশ্বস্তও করেছেন। ভবিষ্যতে বেতন বা ভাতা আমরা ঠিকঠাক পাব বলে আশা করি। আমরা সারা বছর খেলি, তারপরও দেখা যায় অনেকের চেয়ে আমরা কম পাচ্ছি। বিশ্বে সব লিগে কিন্তু স্থানীয় খেলোয়াড়েরা বেশি পারিশ্রমিক পায়।’

মুশফিকের দাবি যে যৌক্তিক, সেটি তিনি পরিসংখ্যান দিয়েও বুঝিয়েছেন। বিপিএলে যে কটি দল শিরোপা জিতেছে, বেশির ভাগই স্থানীয়দের পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে। বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে ক্রিস গেইল যা একটু ব্যতিক্রম ভূমিকা রেখেছেন। টুর্নামেন্ট ইতিহাসের সেরা ব্যাটসম্যান কিংবা বোলার—সবই কিন্তু বাংলাদেশের। সেরা চারেও বাংলাদেশিদের দাপট। মুশফিক তাই বলছেন, ‘বিপিএল ইতিহাসে বাইরের খেলোয়াড়েরা যে খুব বেশি ভালো খেলে তা না। শীর্ষ রানসংগ্রাহক বা উইকেটশিকারির দিকে তাকান। ক্রিস গেইল ছাড়া কারও তেমন একা ম্যাচ জেতানোর রেকর্ড নেই। আমরা চেষ্টা করেছি তাদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ভালো খেলতে।’

পারিশ্রমিক বাড়ানোর যে দাবি উঠেছে, সেটি আরও যৌক্তিক করে তুলতে এবারও স্থানীয়দের ভালো খেলার আহ্বান মুশফিকের, ‘আমাদের নিজেদের খেলার মান আরও বাড়াতে হবে। আমরা এবারও ভালো খেলতে হবে যেন পারিশ্রমিক বৃদ্ধি পায়। আর পারিশ্রমিক বেশি হলেই যে আপনি দল পাবেন, তা নয়। এ বছর দেখেন অনেক ভালো ভালো খেলোয়াড়ও দল পায়নি। সবকিছু বিবেচনা করেই আমাদের এগুলো ঠিক করা উচিত।’

Leave a Reply

Top