You are here
Home > নির্বাচন > ‘প্রতিযোগী নিজেই আম্পায়ারিং করলে তো হলো না’ : ড. কামাল

‘প্রতিযোগী নিজেই আম্পায়ারিং করলে তো হলো না’ : ড. কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদক :

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন বলেছেন, ‘প্রতিযোগী নিজেই যদি আম্পায়ারিং করে তা হলে তো হলো না।’ তিনি বলেন, ‘বাজে ইলেকশন হলেও আমরা করব।’

ড. কামাল জানান অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ এখনও তৈরি হয়নি এবং পুলিশ প্রশাসনের ভূমিকা পক্ষপাতমূলক।

আজ সোমবার রাজধানীর বেইলি রোডে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন ড. কামাল হোসেন। এর আগে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে তাঁর বাসভবনে যান ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্ল্যাক।  

উভয়ে প্রায় এক ঘণ্টা কথা বলেন। পরে কোন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে জানতে চাইলে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘দেশের সার্বিক পরিস্থিতি তিনি জানতে চেয়েছেন। বিশেষ করে জানতে চেয়েছেন, কী ধরনের নির্বাচন হতে যাচ্ছে।’

ড. কামাল বলেন, ‘ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে জানানো হয়েছে, ঐক্যফ্রন্ট নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চায়। সেই লক্ষ্যে সাত দফা দাবিও সরকারকে দেওয়া হয়েছে।’

ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘ইলেকশন কোনোভাবেই বয়কট করা যাবে না। বাজে ইলেকশন হলেও আমরা করব।’ তিনি বলেন, ‘বয়কট করে পাঁচ বছর চালিয়ে নিল এটা তো নজিরবিহীন। আমাদের ইতিহাসে এমন ঘটনা ঘটেনি।’

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ এই নেতা বলেন, ‘সরকার অনেকভাবে নিরপেক্ষ করা যায়, তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা ছাড়াও। এটা আমাদের সংলাপে বলেছি।’ তিনি আরো বলেন, ‘পুলিশকে যেভাবে দলীয় বাহিনী হিসাবে করা হয়েছে এসব তো উদ্বেগের কারণ।’

ব্রিটিশ হাইকমিশনারের কাছে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে ১৫৪ জন বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়ার বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে জানিয়ে ড. কামাল বলেন, ‘৫ জানুয়ারির পর নির্বাচিত সরকার না থাকার কারণে দেশের অনেক ক্ষতি হয়েছে।’

Leave a Reply

Top