You are here
Home > সারা বাংলা > জেলার খবর > প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

সম্প্রতি বহুল প্রচারিত পত্রিকা “দৈনিক যুগান্তর” সহ কিছু জাতীয় দৈনিক ও অনলাইন পোর্টালে ” নেতার বাড়ি থেকে চোরাই গাড়ি উদ্ধার” সহ আরো বিভিন্ন শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। এই সংবাদে বলা হয়েছে যে,চোরাই গাড়ি ক্রয় বিক্রয় জড়িত সন্দেহে দুই জনকে আটক করা হয় গাজীপুর মহানগরের জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার পশ্চিম কলমেশ্বর থেকে। আটককৃতরা হলেন মোহাম্মদ সেলিম খান ও আলমগীর হোসেন।পরে তাদের দেওয়া  তথ্যমতে সাবেক গাছা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সফল সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মশির গ্যারেজ থেকে চোরাইকৃত গাড়িটি উদ্ধার করা হয় । প্রকৃতপক্ষে গ্যারেজে  অনেক ধরনের গাড়িই রাখা হয়। আর সেখানে এতগুলো গাড়ির মধ্যে একটি গাড়ি চোরাইকৃত কিনা সেটাতো গ্যারেজ মালিক অর্থাৎ মশিউর রহমান মশির জানার কথা নয়। অথচ চোরাই গাড়ি উদ্ধার এর সাথে মশিউরকে জড়িয়ে সংবাদ ছাপা হয়েছে। যা কিনা সম্পূর্ন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ভিত্তিহীন। শুধু তাই নয় আটককৃত দুইজনকে মশিউর এর সহযোগী হিসেবে সংবাদে উপস্থাপন করা হয়েছে।এছাড়াও এই সংবাদের মাধ্যমে তাকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের দুর্দিনে রাজপথের লড়াকু সৈনিক ও সাবেক সফল ছাত্র নেতা মোঃ মশিউর রহমান মশি এ ধরনের উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। মশিউর রহমান মশি করোনা মহামারী কালে অসহায়- দুস্থ মানুষের পাশে থেকে তাদেরকে সাহায্য সহযোগিতা করে আসছেন। এছাড়াও সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী কর্মকাণ্ডে তার রয়েছে ব্যাপক সুনাম। প্রকৃতপক্ষে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে একটি মহল সুপরিকল্পিতভাবে এ ধরনের সংবাদ প্রকাশে মদদ যুগিয়েছেন। 
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, আটক দুই জন মশিউর রহমান মশির সহযোগী কেউ নন। মোহম্মদ সেলিম খান গত গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মশিউর রহমান মশির প্রতিদ্বন্ধী পক্ষের হয়ে নির্বাচন করেন এবং আলমগীর হোসেন মশিউর রহমান মশির পরিচিত হওয়ায় তার বাড়িতে গাড়িটি রাখতে চায়।তখন মশিউর রহমান মশি আলমগীর কে বলেন গাড়ি রাখতে কোনো সমস্যা নেই যদি ঝামেলা না থাকে তখন আলমগীর বলেন কোনো সমস্যা নেই। অতঃপর সিআইডি গাড়ি উদ্ধার করতে গেলে মশিউর রহমান মশি আলমগীর ডেকে পাঠান তখন সিআইডি আলমগীর কে আটক করেন বলে মশি জানান।

Top