You are here
Home > আন্তর্জাতিক > পাকিস্তানের একজনও প্রকৃত মুসলমান নয় : সৌদি প্রতিরক্ষামন্ত্রী

পাকিস্তানের একজনও প্রকৃত মুসলমান নয় : সৌদি প্রতিরক্ষামন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ১৯৪৭ সালে স্বাধীনতার পর থেকেই ইসলামিক রাষ্ট্র হিসাবে পরিচিতি পেয়েছে পাকিস্তান। অথচ ওই দেশে নাকি একজনও মুসলমান নেই বলে দাবি করেছেন সৌদি আরবের প্রতিরক্ষামন্ত্রী মহম্মদ বিন সালমান। এশিয়ার অন্যতম ধনী এই দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীর এমন কথায় আন্তর্জাতিক মহলে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে জোর চর্চা।

রবিবার এক অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে সৌদি আরবের প্রতিরক্ষামন্ত্রী সালমান বলেন, “সৌদি আরবই এশিয়ার মধ্যে একমাত্র মুসলমান রাষ্ট্র। পাকিস্তানে নিজেদের মুসলমান দেশ বলে দাবি করে। একজন সত্যিকারের মুসলমান বলতে যা বোঝায় ওই দেশে তেমন একজনও নেই। ”

তবে এখানেই থেমে থাকেননি সৌদির এই মন্ত্রী৷ তিনি আরও দাবি করে বলেন, “পাকিস্তান হল একটা ক্রীতদাসের দেশ। ভারতের মতো দেশের হিন্দুদের ধর্মান্তর করে যারা মুসলমান হয়েছে তারাই পাকিস্তানে থাকে। এদের আসলে ‘হিন্দু-মুসলমান’ বলা হয়। ”

তবে শুধু পাকিস্তান নয়। একই সঙ্গে ভারত ও বাংলাদেশ সম্পর্কেও মন্তব্য করেন সালমান। তার মতে ভারত ও বাংলাদেশের মুসলমানরাও ধর্মান্তর করেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে। তবে এর পাশাপাশি তার কথা অনুযায়ী ‘হিন্দু-মুসলমান’দের কর্ম দক্ষতা কিছু কম নয়। সেই কারণে আরবের একাধিক সরকারি অফিসে উচ্চ পদে বহাল তবিয়তে কাজ করছেন তারা।

Leave a Reply

Top