You are here
Home > প্রচ্ছদ > নির্বাচন থেকে বিএনপিকে দূরে রাখতে চায় আ.লীগ: খালেদা

নির্বাচন থেকে বিএনপিকে দূরে রাখতে চায় আ.লীগ: খালেদা

বিশেষ প্রতিনিধি :
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অভিযোগ করেছেন, বিএনপি ও ২০-দলীয় জোটকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে আওয়ামী লীগ বিভিন্ন জায়গায় কাজ করছে। আওয়ামী লীগ এটা জেনেশুনেই করছে।

রাজধানীর গুলশানে একটি অভিজাত হলে আজ রোববার সন্ধ্যায় এক ইফতার মাহফিলে খালেদা জিয়া এ অভিযোগ করেন। রাজনৈতিক নেতা ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সম্মানে ২০-দলীয় জোটের শরিক দল জাতীয় পার্টি (জাফর) এই মাহফিলের আয়োজন করে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে খালেদা জিয়া বলেন, বিএনপি ও ২০-দলীয় জোট নির্বাচনে অংশ নিলে আওয়ামী লীগের কোনো ভবিষ্যৎ নেই। বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে এই ভয়ে আওয়ামী লীগ ভীত হয়ে পড়েছে।

চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় বিএনপি মহাসচিবের গাড়িবহরে হামলার তীব্র নিন্দা জানান খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, আজ যে ঘটনা ঘটল, তা থেকে প্রমাণিত হয় যে দেশে যত সন্ত্রাস, যত বিশৃঙ্খলা, অরাজকতা—সব আওয়ামী লীগ করছে। অবিলম্বে এই হামলাকারীদের গ্রেপ্তার, শাস্তির দাবি জানিয়ে খালেদা জিয়া বলেন, ‘আমি জানতে চাই, মহাসচিবের ওপর যে হামলা হলো, তারপর এ ঘটনায় কতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আমাদের লোকজন কিছু না করলেও সঙ্গে সঙ্গে গ্রেপ্তার করে মামলা দেওয়া হয়। এই হামলাকারীদের ধরতে হবে, শাস্তি দিতে হবে, জেলে পুরতে হবে। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। এর থেকে প্রমাণিত হয়েছে যে আজকে দেশে নির্বাচন অবশ্যই হতে হবে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেন, ‘আওয়ামী লীগের অধীনে, শেখ হাসিনার অধীনে এই দেশে কোনো নির্বাচন হবে না, হতে দেওয়া হবে না। আমরা ঈদের পরপরই সহায়ক সরকারের রূপরেখা দেব। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনেই নির্বাচন হতে হবে।’

খালেদা জিয়া অভিযোগ করেন, ‘আওয়ামী লীগ তাদের যতটুকু দায়িত্ব তারা পালন করেনি। দুর্যোগের যে ঘটনা ঘটেছে তাতে বড় দল হিসেবে বিএনপির মহাসচিবের নেতৃত্বে একটি দল গিয়েছে। দলটি সেখানে সাহায্য করবে বলে গিয়েছে। আমাদের লোকেরাই রাস্তা কিছুটা ঠিক করে দিয়েছে, যাতে দলের প্রতিনিধিদল সেখানে যেতে পারে। যেইমাত্র বিএনপি সেখানে গেছে, আওয়ামী লীগের লোকজন আক্রমণ করেছে—তা আপনারা সবাই জেনেছেন, দেখেছেন।’

ইফতার মাহফিলে শুভেচ্ছা বক্তব্যে জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা জামাল হায়দার বলেন, আজ দুপুরে যে ঘটনা ঘটল, তাতে এই সরকার অবাধ নির্বাচন দিতে পারে—এটা বিশ্বাস করা যায় না। ইফতার মাহফিলে এলডিপি মহাসচিব রেদোয়ান আহমেদসহ ২০-দলীয় জোটের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন।

Leave a Reply

Top