You are here
Home > খেলাধুলা > নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের প্রত্যয় মাশরাফির

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের প্রত্যয় মাশরাফির

 নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েই শেষটা ভালো করতে চান মাশরাফি। ছবি: এএফপি

ক্রিয়া প্রতিবেদকঃ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৮ উইকেটে জয়। এ নিয়ে দারুণ সন্তুষ্টি অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার। সেই সঙ্গে একটা আফসোসও আছে তাঁর। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও যদি জয়টা তুলে নিতে পারত তাঁর দল! ত্রিদেশীয় সিরিজে প্রথম জয় তুলে নিয়েই শেষ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে হারানোর প্রত্যয় তাঁর।
শুরুর দিকে প্রতিপক্ষের একাধিক উইকেট ফেলতে পারলে কাজটা অনেক সহজ হয়ে যায় বলেই মনে করেন মাশরাফি, ‘নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আমরা শুরুর দিকে উইকেট ফেলতে পারিনি। কিন্তু আজ (গতকাল) আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বোলাররা ঠিক সেই কাজটাই সাফল্যের সঙ্গে করেছে। বোলারদের কাছ থেকে আমরা এমন কিছুই সব সময় চাই।’
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বোলাররা দ্রুত উইকেট নিতে পারেননি, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সেটি করেই জয়টা সহজ হয়েছে। দুই ম্যাচের পার্থক্য ঠিক এই জায়গাতেই। টসে জিতে ডাবলিনের মালাহাইডে আইরিশদের ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে অধিনায়ক যা করতে চেয়েছিলেন, বোলাররা তাঁকে ঠিক সেটিই করে দেখিয়েছেন। নিজের প্রথম ওভারের তৃতীয় বলে মোস্তাফিজুর রহমান পল স্টার্লিংকে ফেরত পাঠিয়ে ধ্বংসযজ্ঞের শুরুটা করেন। রুবেল হোসেন উইকেট না পেলেও নিজের পেস ও বাউন্স দিয়ে আয়ারল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের ঠিকই বিব্রত করেছেন। যে সুযোগটা নিয়েছেন সাকিব আল হাসান, মোসাদ্দেক হোসেন ও অভিষিক্ত সানজামুল ইসলাম। দ্বিতীয় স্পেলে বল করতে এসে মোস্তাফিজ যেন হয়ে উঠেছিলেন আরও ভয়ংকর! অধিনায়ক নিজেও তো করেছেন দারুণ বোলিং।
সব মিলিয়ে ‘নিখুঁত’ একটা ম্যাচ। আয়ারল্যান্ডকে ১৮২ রানে গুটিয়ে দিয়ে ২৮ ওভারের মধ্যেই খেলা বের করে নেওয়াটাও তো দারুণ। তামিম ইকবাল-সৌম্য সরকার-সাব্বির রহমান, ভালো খেলেছেন সবাই। সৌম্যর ইনিংসটি তো ছিল দারুণ উপভোগ্য। ৬৮ বলে ১১টি চার ও ২টি ছয়ে ৮৭ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়েই ফিরেছেন এই ওপেনার। ‘নিখুঁত’ এই ম্যাচের মূলে টসভাগ্যটা যে গুরুত্বপূর্ণ ছিল, সেটি স্বীকার করতে ভোলেননি মাশরাফি, ‘টস জেতাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। উইকেটে বেশ আর্দ্রতা ছিল, আমাদের ফাস্ট বোলাররা সেই আর্দ্রতাকে খুব ভালোভাবেই কাজে লাগিয়েছে।’
আয়ারল্যান্ডকে ১৮২ রানে অলআউট করে দিলেও কাজটা যে খুব সহজ ছিল, সেটা মানতে চাননি মাশরাফি। তবে জয়টা সহজে আসায় তিনি প্রশংসায় ভাসিয়েছেন দুই ওপেনার তামিম ও সৌম্যকে, ‘দ্রুত উইকেট পড়ে যাওয়াটা যেকোনো দলের জন্যই সমস্যা। তবে তামিম আর সৌম্য ইনিংসের প্রথম ১০ ওভারে ওভারপ্রতি ৭ রান করে নিয়ে আমাদের কাজটা অনেকটাই সহজ করে দিয়েছে।’
আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বড় জয় তুলে নিয়ে মাশরাফির চোখ এখন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচটির দিকে। আগামী বুধবার সেই ম্যাচে যেকোনো মূল্যে জয় চান অধিনায়ক, ‘আমরা নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পরের ম্যাচে জিততে চাই। এর আগের ম্যাচেই আমাদের জয়ের সুযোগ ছিল। কিন্তু আমরা পারিনি। তবে আমি মনে করি, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আমরা আজ যেভাবে খেললাম, সেভাবে খেলতে পারলে আমরা নিউজিল্যান্ডকেও পরের ম্যাচে হারাতে পারব।’ সূত্র: এএফপি

Leave a Reply

Top