You are here
Home > প্রচ্ছদ > নওগাঁয় প্রথম করোনা ভাইরাস-এর ছোঁয়া, রানীনগর হাসপাতালের এক সেবিকা আক্রান্ত

নওগাঁয় প্রথম করোনা ভাইরাস-এর ছোঁয়া, রানীনগর হাসপাতালের এক সেবিকা আক্রান্ত


একেএম কামাল উদ্দিন টগর, নওগাঁ :

অবশেষে নওগাঁয় প্রথম এক জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের লক্ষন ধরা পড়েছে। নওগাঁর সিভিলসার্জন ডাঃ আকন্দ মোঃ আখতারুজ্জামান নিশ্চিত করেছেন যে রানীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক সেবিকা’র শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। আক্রান্ত ঐ সেবিকা স্বপরিবারে রানীনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে-এর অভ্যন্তরে সরকারী বাসায় বসবাস করছেন। তাঁর বাড়ি রানীনগর উপজেলার খাগড়া গ্রামে। বৃহষ্পতিবার রাতে তাঁর শরীরে করোনা সনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। সিভিল সার্জন জানিয়েছেন ঐ সেবিকা জ্বর সর্দিতে আক্রান্ত ছিলেন। এমতাবস্থায় গত মঙ্গলবার তারাসহ ওই হাসপাতালের একাধিক সেবিকার নমুনা সংগ্রহ করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। বৃহস্পতিবার রাতে প্রতিবেদন হাতে পেলে তার শরীরে করোনা আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়। তবে ধারনা করা হচ্ছে যে ঢাকা, নারায়নগঞ্জ কিংবা কুমিল্লা থেকে আগত শিশুদের হাসপাতালে এনে টিকা দেওয়ার সময় সেই সব শিশুর করোনা আক্রান্ত কোন অভিভাবকদের সংস্পর্শে হয়তো বা তিনি করোনা ভ্ইারাসে আক্রান্ত হতে পারেন।

ঐ সেবিকা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর তাঁর সংস্পর্শে আসা সহকর্মী, পরিবারের সদস্য ও অন্যান্য ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এছাড়া সেবিকার আবাসস্থলসহ বেশ কয়েকটি বাসভবন লকডাইন করা হয়েছে বলে জানান সিভিলণ সার্জন। এ ছাড়্ওা হাসাপাতাল রেজিষ্ট্রার অনুসন্ধান করে কোন কার দ্বারা করোনা ছড়ানো হ“েয়ছে তদাকে খোঁজা হচ্ছে।

এদিকে সিভিল সার্জনের কন্ট্রোলরুম সুত্রে জানা গেছে গত ২৪ ঘন্টায় নওগাঁ জেলার ১১ুিট উপজেলার মধ্যে ১০টি উপজেলায় নতুন করে ১৩১ জনকে হোম কোয়ারেনটাইনে পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় এ পর্যন্ত ৩ হাজার ৯শ ৮৫ জনকে হোম কোয়ারেনপাইনে এবং ১৩ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেনটাইনে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে গত ২৪ ঘন্টায় ১৪ দিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় ১৯৩ জনকে হোম কোয়ারেনটাইন থেকে মুক্ত করা হয়েছে। এ পর্যন্ত প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেনটাইনের ৪ জনসহ সর্বমোট ২ হাজার ৮শ ৩৬ জনবে ছাড়্রপত্র দেয়া হয়েছে। বর্তমানে ৯ জন প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেনটাইনসহ মোট কোয়ারেনটাইনে রয়েছেন ১ হাজার ১শ ৬২ জন।

নওগাঁ জেলা থেকে এ পর্যন্ত ৪৫৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে বৃহষ্পতিবার রাত পর্যন্ত প্রাপ্ত ফলাফলে ১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের লক্ষন সনাক্ত হয়েছে। বাঁকী কারও শরীরে করোনা সনাক্ত হয় নি। সকলেই সুসস্থ্য আছেন।#

Leave a Reply

Top