You are here
Home > বিনোদন > ‘ছোট বলে আমাকে অসম্মান করেনি’

‘ছোট বলে আমাকে অসম্মান করেনি’

বিনোদন ডেস্কঃ বিবাহিত জীবনের ৫২ বছর পার করে দিয়েছেন তারকা দম্পতি সৈয়দ হাসান ইমাম ও লায়লা হাসান। আজ শনিবার থেকে তাঁদের ৫৩ বছরের পথচলা শুরু। ৩০ জুন ছিল তাঁদের বিবাহবার্ষিকী। ছেলে, ছেলের বউ আর নাতিকে নিয়ে কেক কেটে বিশেষ এই দিন উদ্‌যাপন করেছেন তাঁরা।

দীর্ঘ বিবাহজীবন নির্বিঘ্নে কাটিয়ে দেওয়ার মূলমন্ত্র কী, জানতে চাইলে লায়লা হাসান প্রথম আলোকে বলেন, ‘এ ক্ষেত্রে দুজনের মানসিকতার মিল, বিশ্বাস আর শ্রদ্ধাবোধটাই সবচেয়ে বড় বিষয়। বয়সে আমি তাঁর (সৈয়দ হাসান ইমামের) থেকে প্রায় ১১ থেকে ১২ বছরের ছোট। কিন্তু বয়সে ছোট বলে আমাকে সে কখনোই অসম্মান করেনি। স্বামী আমাকে সম্মান দিয়েছে বলেই সন্তান ও শ্বশুরবাড়ির সবার কাছ থেকেও আমি অনেক সম্মান ও ভালোবাসা পেয়েছি।’
সৈয়দ হাসান ইমাম ও লায়লা হাসানের ছেলে তাঁর পরিবার নিয়ে ১৮ বছর পর দেশে ঈদ উদ্‌যাপন করতে এসেছেন বলে এবার এই দম্পতির ঈদটিও দারুণ কেটেছে। লায়লা হাসান বলেন, তাঁদের ৫০তম বিবাহবার্ষিকীর আয়োজনও ছেলে আর বউ মিলেই করেছিলেন। সে সময় এই তারকা জুটির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে বিশাল এক সারপ্রাইজ পার্টির আয়োজন করেছিলেন তাঁরা।
এবারের বিবাহবার্ষিকী ঘরোয়াভাবে পালিত হলেও সৈয়দ হাসান ইমামকে উপহার দিতে ভোলেননি নৃত্যশিল্পী ও অভিনেত্রী লায়লা হাসান। গতকাল স্বামীকে একটি পাঞ্জাবি উপহার দিয়েছেন তিনি। সৈয়দ হাসান ইমামও তাঁর স্ত্রীকে শাড়ি উপহার দিয়েছেন। বলেন, বন্ধুবান্ধব আর পরিবারের সদস্যদের নিয়ে আড্ডা, খাওয়াদাওয়া করে ভালোই কেটেছে কালকের দিনটি।
আলাপ শেষে এই প্রজন্মের দম্পতিদের সুখী থাকার একটি কৌশলও বাতলে দিলেন লায়লা হাসান। তাঁর মতে, ধৈর্য আর সহনশীলতাই সংসারজীবনে সুখী থাকার আসল চাবিকাঠি। পারস্পরিক সমঝোতার মাধ্যমে নিজেদের মধ্যকার ঝামেলাগুলো মিটিয়ে ফেলারও পরামর্শ দেন তিনি। নিজেদের মধ্যে যদি টুকটাক ঝামেলা হয়, তাহলে তা যেন নিজেরাই মিটিয়ে ফেলেন। আর বাদ দিতে বললেন অহংবোধ।

বিবাহবার্ষিকীতে কেক কাটছেন লায়লা হাসান ও সৈয়দ হাসান ইমাম।

Leave a Reply

Top