You are here
Home > খেলাধুলা > গ্রামে ‘নিষিদ্ধ’ ফকর জামান এখন পাকিস্তানের ‘হিরো’

গ্রামে ‘নিষিদ্ধ’ ফকর জামান এখন পাকিস্তানের ‘হিরো’

ক্রিয়া প্রতিবেদকঃ ক্রিকেটটা যে আগে ভালো খেলতেন না এমন নয়, তবে কখনো পেশা হিসেবে ভাবতেন না পাকিস্তানের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের নায়ক ফখর জামান। যদিও এই ক্রিকেট খেলায় এক সময় নিজ গ্রামে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। এমনকি ক্রিকেট খেলা নিয়ে ভাইয়ের হাতে মারও খেতে হয়েছিল তাকে। সেটাও অন্যদের প্রতিহিংসায়। ক্রিকেটটা খুব খেলতেন বলেই তাকে এলাকায় নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। কারণ ফখর জামান বাকিদের চেয়ে এত বেশি ভালো খেলতেন যে তাকে এক দলে নেয়া মানে অন্য দলের সঙ্গে অন্যায় করা! তখনকার দিনের সেই ছোট্ট ফখর জামান গ্রামের বাড়িতে ফিরে এখন পাচ্ছেন বীরোচিত সম্মান।

দ্য ডনের খবর, উজ্জ্বল চোখের ২৭ বছর বয়সী ফখর জামানকে ফুলের মালা দিয়ে স্বাগত জানিয়েছেন পাকিস্তানের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলের সেই ক্যাটলাং গ্রামের বাসিন্দারা। শুধু তাই নয়, তার সঙ্গে সেলফি তুলতে ভিড় করছেন উৎসুক জনতা।

পাকিস্তানের জনপ্রিয় গণমাধ্যমে আরও বলা হয়, ছোট থেকেই ফকর জামানে আশা ছিল নৌবাহিনীতে চাকরি করা। সেটা পেয়েছিলেনও তিনি। কিন্তু সেখানে কর্মরত থাকার সময় তার প্রতিভা দেখে নৌবাহিনীর ক্রিকেট দলের কোচ নাজিম খান তাকে চাকরি ছেড়ে ক্রিকেটে মনোনিবেশের কথা বলেন। সেই কথা শুনে গত ৫ বছর খেলেছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে।

চলতি বছরের পাকিস্তান সুপার লিগের উজ্জ্বল পারফর্মেন্সের পর নির্বাচক কমিটির দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হন ফখর জামান। যদিও ওয়েস্ট ইন্ডিসের বিপক্ষে সুযোগ পাওয়া দু’টি টি-টোয়েন্টিতে এমন কোনো পারফর্ম করেননি যে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে তাকে রাখা যায়। তাই মূল দলে যায়গা পাওয়া নিয়ে শঙ্কা ছিল। কিন্তু ওপেনার আহমেদ শেহজাদের অফ ফর্মই তাকে সেই সুযোগটা করে। এরপর বাকিটা ইতিহাস।

Leave a Reply

Top