You are here
Home > সারা বাংলা > জেলার খবর > গাজীপুরে আওয়ামী লীগের জনসভা শুরু হওয়ার আড়াই ঘণ্টা আগে স্থগিত ঘোষণা

গাজীপুরে আওয়ামী লীগের জনসভা শুরু হওয়ার আড়াই ঘণ্টা আগে স্থগিত ঘোষণা

গাজীপুর প্রতিনিধি :

গাজীপুরে আওয়ামী লীগের জনসভা শুরু হওয়ার আড়াই ঘণ্টা আগে স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর পরীক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করেই ওই জনসভা বাতিল করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে দলটির পক্ষ থেকে।

আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে জনসভাটি স্থগিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ।

দুপুর ২টার দিকে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকার ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ মাঠে জনসভা শুরু হওয়ার কথা ছিল।

স্থানীয় কয়েকজন নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, জনসভা জন্য ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ মাঠে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। পূর্বঘোষিত সময় অনুযায়ী দুপুর ২টার এ জনসভায় অংশ নিতে সকাল ১০টার পর থেকেই নেতাকর্মীরা সভাস্থল ও আশপাশের এলাকায় এসে জড়ো হতে শুরু করে। সাড়ে ১১টার দিকে নেতাকর্মীরা জনসভা স্থগিতের বিষয়টি জানতে পারেন। পরে দুপুর পর্যন্ত অপেক্ষা করে তারা এলাকা ত্যাগ করতে শুরু করেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জাতীয় পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট হারিছ উদ্দিন আহমদ ও গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজমত উল্লাহ খান জানান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকোত্তর পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা অনুষ্ঠানের কথা ছিল জনসভার জন্য প্রস্তুত কলেজ কেন্দ্রে। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বিষয়টি জেনে পরীক্ষার্থীদের স্বার্থ বিবেচনায় নিয়ে জনসভাটি স্থগিতের নির্দেশ দেয়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়ার পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়েছে।

ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক জেরিনা সুলতানা বলেন, জনসভার কারণে এক হাজার ৬০০ পরীক্ষার্থীর কেন্দ্র পরিবর্তন করে চান্দনা চৌরাস্তা এলাকার কয়েকটি কলেজে স্থানান্তর করা হয়। জনসভা স্থগিত হলেও পরিবর্তিত কেন্দ্রগুলোতেই শনিবারের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এ বিষয়ে গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সবুজ বলেন, জনসভা স্থগিতের খবর জেলার সব জায়গায় পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে তারিখ ও স্থান নির্ধারণ করে এ জনসভা আয়োজন করা হবে।

গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জনসভাটি শনিবার ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। সমাবেশটি ঘিরে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে জেলাব্যাপী পোস্টারিং, মাইকিং ও সভাসহ নানাভাবে প্রচার চালানো হয়। কলেজ কর্তৃপক্ষ জনসভা করার অনুমতিও দিয়েছিল।

তবে জনসভার কারণে কোনো গণবিজ্ঞপ্তি ছাড়াই পরীক্ষার কেন্দ্র পরিবর্তন করে কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে শিক্ষার্থী-অভিভাবকসহ বিভিন্ন মহলে প্রচণ্ড ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

জনসভায় গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুলরের উপস্থিত থাকার কথা ছিল।

এ ছাড়া সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট রহমত আলী, দীপু মনি, মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, সংসদ সদস্য (এমপি) জাহিদ আহসান রাসেল ও সিমিন হোসেন রিমিসহ আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতার জনসভায় উপস্থিত থাকার কথা ছিল।

Leave a Reply

Top