You are here
Home > প্রচ্ছদ > খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ‌১৪ ডিসেম্বর

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ‌১৪ ডিসেম্বর


আদালত প্রতিবেদক :

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আওয়ামী লীগকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা মানহানির মামলা তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ১৪ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আজ বুধবার ঢাকার মহানগর হাকিম এস এম মাসুদ জামান এ আদেশ দেন।

গত ২৫ জানুয়ারী জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী মানহানির মামলাটি করেন। ওই সময়ে ঢাকা মহানগর হাকিম আবদুল্লাহ আল মাসুদ মামলাটি তদন্ত করার জন্য শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দেন।

এ বিষয়ে বাদী এ বি সিদ্দিকী বলেন, ‘আজ মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু শাহবাগ থানার পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল না করায় বিচারক নতুন করে দিন ধার্য করেন।’

গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খালেদা জিয়া বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের স্বাধীনতা চান নাই। তিনি চেয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রিত্ব। জেনারেল জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দেওয়ায় এ দেশের জনগণ যুদ্ধে নেমে ছিল।’ খালেদা জিয়া আরো বলেন, ‘বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে উন্নয়নের নামে চলছে দুর্নীতি ও লুটপাট। দলীয় লোকদের জঙ্গি বানিয়ে নিরীহ লোকজনকে হত্যা করছে, ধর্মলঘুদের বাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ করে লুটপাট ও হত্যা করছে। পুলিশ বাহিনী দিয়ে বিরোধী দলসহ ভালো ভালো লোককে গ্রেপ্তার করে গুম ও হত্যা করছে।’

বিএনপি চেয়ারপারসন আরো বলেন, ‘উন্নয়নের নামে পদ্মা সেতু ও ফ্লাইওভারের কাজ বিলম্ব করে ব্যয়বহুল অর্থ দেখিয়ে লুটপাট করছে। যার বিরুদ্ধে আমি ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের হুকুম দিচ্ছি তোমরা প্রতিটি গ্রামে-গঞ্জে নেমে এই সরকারের বিরুদ্ধে সব জনগণ ও যুবসমাজকে ঐক্যবদ্ধভাবে আমাদের পক্ষে নামার ব্যবস্থা করো।’

খালেদা জিয়ার ওই বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগের মানহানি হয়েছে দাবি করে মামলাটি করা হয়।

Leave a Reply

Top