You are here
Home > খেলাধুলা > ক্যাচ মিসের খেসারত দিতে হয়েছে: ম্যাথুস

ক্যাচ মিসের খেসারত দিতে হয়েছে: ম্যাথুস

ক্রিয়া প্রতিবেদকঃ জয়ের খুব কাছাকাছি যেয়েও পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো শ্রীলঙ্কাকে। সেই সাথে শেষ হয়ে গেল চলতি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনাল খেলার স্বপ্ন। আর এই সবকিছুর জন্য ক্যাচ ছেড়ে দেয়াকেই দায়ী করছেন লঙ্কান অধিনায়ক। বিশেষ করে গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের দুটি ক্যাচ ছেড়ে দেয়াই যেন ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট ছিল।

কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনে অবিশ্বাস্য হারের পর লঙ্কান অধিনায়ক ম্যাথুস দ্বিধাহীনভাবে জানিয়েছেন, পাকিস্তানের বিপক্ষে তাদের ফিল্ডিং ছিল ‘হতাশাজনক’। বাজে ফিল্ডিংয়ের খেসারত দিয়েই ম্যাচটা হেরেছেন তারা। এসময় তিনি আরো বলেন, ‘আমাদের পারফরম্যান্সের দিকে তাকিয়ে দেখুন, আমরা আবারো হতাশাজনক ফিল্ডিং করেছি। ‘ সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘আমরা যদি ক্যাচগুলো নিতে পারতাম, বিশেষ করে ঐ গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তগুলোতে, তবে গল্পটা হতো সম্পূর্ণ আলাদা। ‘

প্রসঙ্গত, গতকাল সোমবার গ্রুপ ‘বি’র শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩ উইকেটের স্মরণীয় জয় পেয়েছে পাকিস্তান। ২৩৭ রানের সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে পাকিস্তানের স্কোরবোর্ডে ১৬২ রান জমা হতেই নেই ৭ উইকেট। স্বীকৃত ব্যাটসম্যান হিসেবে উইকেটে তখন কেবল সরফরাজ। সেই পাকিস্তান অধিনায়কের ক্যাচই কি না দুবার লঙ্কান ফিল্ডারদের হাত ফসকে বেরিয়ে গেল! ব্যক্তিগত ৩৮ ও ৪০ রানে দুবার জীবন পেলেন সরফরাজ। মোহাম্মদ আমিরকে নিয়ে অষ্টম উইকেটে গড়লেন ৭৫ রানের অবিছিন্ন জুটি। তৃতীয় সুযোগটাকে কাজে লাগিয়ে পাকিস্তান অধিনায়ক খেললেন অপরাজিত ৬১ রানের ম্যাচজয়ী ইনিংস।

তবে এখানেই শেষ নয়। এর আগে, পাকিস্তানের ইনিংসের প্রথম ওভারেই ওপেনার আজহার আলির ক্যাচ ছেড়ে দেন দানুস্কা গুনাথিলাকা। শূন্য রানে বেঁচে যাওয়া আজহারের ব্যাট থেকে আসে ৩৪ রান। ফখর জামানের সঙ্গে তার উদ্বোধনী জুটিটা ছিল ৭৪ রানের। তিনটি সুযোগই তৈরি করেছিলেন লঙ্কান তারকা গতিমানব লাসিথ মালিঙ্গা। কিন্তু সতীর্থদের ব্যর্থতায় ৫২ রান খরচায় ১ উইকেট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে তাকে।

সূত্র: ক্রিকবাজ

Leave a Reply

Top