You are here
Home > জাতীয় > কোটা সংস্কার নিয়ে মন্ত্রিসভায়ও আলোচনা

কোটা সংস্কার নিয়ে মন্ত্রিসভায়ও আলোচনা


নিজস্ব প্রতিবেদক :

দেশব্যাপী চলমান কোটা সংস্কারের আন্দোলন নিয়ে আলোচনা হয়েছে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকেও। তবে বৈঠক থেকে কোটা সংস্কারের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

আজ সোমবার বিকেলে সচিবালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম।

এর আগে বেলা ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে শুরু হয় মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক। পরে সচিবালয়ে ব্রিফিং করেন সচিব।

শফিউল আলম জানান, মন্ত্রিসভায় আজ এজেন্ডা-বহির্ভূত আলোচনায় কোটা সংস্কারের বিষয়ে আলোচনা হয়। এ সময় কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলন ও এর যৌক্তিকতা নিয়ে আলোচনা করা হয়।

সচিব জানান, কোটার বিষয়টি সংবিধানেই বলা আছে। তবে গত ৬ মার্চ একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। সেখানে বলা হয়, যদি কোনো কোটা পূরণ না হয়, তাহলে তা মেধা কোটা থেকে নিয়ে পূরণ করা হবে। সেই ব্যাখ্যা নিয়ে একটি ভুল বোঝাবুঝি তৈরি হয়েছে। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওই ব্যাখ্যা দিয়ে জারি করা ওই পরিপত্র খতিয়ে দেখতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

এ পর্যন্ত কোটাপদ্ধতিতেও মেধা কোটাকে কখনো অবহেলা করা হয়নি উল্লেখ করে সচিব বলেন, মেধা কোটা ৪৪ শতাংশ হলেও গত তিন বছরে প্রায় ৭০ শতাংশ নিয়োগ মেধা কোটা থেকেই হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, মুক্তিযোদ্ধা কোটায় উপযুক্ত প্রার্থী পাওয়া না গেলে তা মেধা কোটা থেকেই পূরণ করা হয়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন, যেহেতু কোটা পূরণ হয় না, তাহলে পদ্ধতি সংস্কার করে মেধা কোটা বাড়াতে সমস্যা কোথায়?

জবাবে সচিব বলেন, এটা সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার বিষয়।

Leave a Reply

Top