ওয়ার্নার-স্মিথের সাবলিল ব্যাটিংয়ে হতাশ বাংলাদেশ – Live News BD, The Most Read Bangla Newspaper, Brings You Latest Bangla News Online. Get Breaking News From The Most Reliable Bangladesh Newspaper; livenewsbd.co
You are here
Home > খেলাধুলা > ওয়ার্নার-স্মিথের সাবলিল ব্যাটিংয়ে হতাশ বাংলাদেশ

ওয়ার্নার-স্মিথের সাবলিল ব্যাটিংয়ে হতাশ বাংলাদেশ

ক্রিয়া প্রতিবেদকঃ প্রাথমিক বিপর্যয় কাটিয়ে অস্ট্রেলিয়া এখন ভালো অবস্থায় পৌঁছে গেছে। ২৮ রানে ২ উইকেট হারানোর পর তাদের সংগ্রহ এখন ওই ২ উইকেটেই ১০৯ রান। অস্ট্রেলিয়া এখন সার্বিকভাবে ১৫৬ রানে পিছিয়ে আছে।
ডেভিড ওয়ার্নার ৭৫ এবং স্মিথ ২৫ রানে ক্রিজে রয়েছেন। বাংলাদেশের জয়ের পথে এই জুটি কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই জুটি ভাঙ্গতে পারলে বাংলাদেশের এগিয়ে চলা হতে পারে মসৃণ।
এর আগে সাকিব আল হাসান আর মেহেদি হাসান মিরাজের ঘূর্ণিতে অসহায় হয়ে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। ২৮ রান সংগ্রহ করতেই তারা ২ উইকেট হারিয়ে ফেলে। মিরাজ ১টি এবং সাকিব ১টি উইকেট নেন। প্রথম আঘাত হানেন মিরাজ। তার শিকার হয়ে বিদায় নেন রেনশ। তিনি করেছিলেন ৫ রান। এরপর সাকিবের শিকার হন উসমান খাজা। তিনি করেছিলেন ১ রান।

এর আগে সফরকারী অস্ট্রেলিয়াকে ২৬৫ রানের টার্গেট দেয় স্বাগতিক বাংলাদেশ। নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ২২১ রানেই গুটিয়ে যায় টাইগাররা। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৬০ রান। অস্ট্রেলিয়ার ছিল ২১৭ রান। বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে তামিম ইকবাল ৭৮, অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ৪১, মেহেদি হাসান মিরাজ ২৬ ও সাব্বির রহমান ২২ রান করেন। অস্ট্রেলিয়ার অফ-স্পিনার নাথান লিঁও ৬ ও অ্যাস্টন আগার ২টি উইকেট নেন।

বিরল কীর্তি গড়া হলো না সাকিব-তামিমের
ঢাকায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের ক্যারিয়ারের ৫০তম টেস্ট খেলতে নেমেছেন বাংলাদেশের দুই সেরা খেলোয়াড় তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। নিজেদের স্মরণীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন তামিম ও সাকিব। প্রথম ইনিংসে তামিম ৭১ ও সাকিব ৮৪ রান করেন।

দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যাট হাতে হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন তামিম। ৭৮ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। তবে এই ইনিংসে ব্যাট হাতে ব্যর্থ সাকিব। মাত্র ৫ রান করেন তিনি। তাই ৫০তম টেস্টের দুই ইনিংসে হাফ-সেঞ্চুরি করলেও, সেঞ্চুরি করা হয়নি তামিমের। আর ৫০তম টেস্টের এক ইনিংসে হাফ-সেঞ্চুরি করলেও, অন্য ইনিংসে দুই অংকে পৌঁছাতে পারেননি সাকিব।

তাই নিজেদের ৫০তম টেস্টে সেঞ্চুরির স্বাদ নিতে পারলেন না তামিম ও সাকিব। ফলে ৫০তম টেস্টে সেঞ্চুরি করার খেলোয়াড়দের তালিকাতেও নিজেদের নাম তুলতে পারলেন না বাংলাদেশের তামিম ও সাকিব। ৫০তম টেস্টে এখন পর্যন্ত সেঞ্চুরি পেয়েছেন ৩২জন খেলোয়াড়। শুধুমাত্র সেঞ্চুরিই নয়, ডাবল-ট্রিপল সেঞ্চুরিও করেছেন এই তালিকার খেলোয়াড়রা। ভারতের সুনীল গাভাস্কার, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্লাইভ লয়েড, পাকিস্তানের জাভেদ মিয়াঁদাদ, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বর্তমান খেলোয়াড় ক্রিস গেইলসহ আরও অনেকের নাম রয়েছে। ক্রিকেট ইতিহাসে নিজের ৫০তম টেস্টে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলেছেন গেইল। ২০০৫ সালে সেন্ট জোন্সে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩১৭ রান করেছিলেন গেইল।

সর্বশেষ এই তালিকায় নাম ওঠে ভারতের চেতেশ্বর পূজারার। গেল মাসে শ্রীলংকার বিপক্ষে নিজের ৫০তম টেস্টে ১৩৩ রানের ইনিংস খেলেছিলেন পূজারা।

মিরাজের তাণ্ডব
মুশফিকুর রহিমের পর এক ওভারে আউট সাব্বির-নাসির। এরপর ক্রিজে আসেন মেহেদী হাসান মিরাজ। আর এসেই তাণ্ডব চালান তিনি। এক ওভারেই তিন বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন তিনি।

ব্যাট করলেন সাব্বির, আউট মুশফিক
দুর্ভাগ্যজনক-ই বলতে হয়! লিঁও’র বলে ব্যাট চালালেন সাব্বির রহমান। অপরপ্রান্তে থাকা মুশফিকুর রহিম উইকেট ছেড়ে একটু এগিয়ে এসেছিলেন। বল লিঁও’র হাত ছুঁয়ে স্ট্যাম্পে। রান আউট মুশফিক! আফসোস নিয়ে মাঠ ছাড়লেন তিনি। কারণ অভিজ্ঞ বলতে একমাত্র তিনিই বাকি ছিলেন।

উড়িয়ে মারতে গিয়ে আউট সাকিব
স্পিনার নাথান লিঁওকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে আউট হন সাকিব আল হাসান। তামিম সাহঘরে ফেরার পর ক্রিজে এসেছিলেন তিনি। মুশফিকের সাথে লম্বা জুটির আশায় ছিল ক্রিকেটভক্তরা। কারণ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে এই জুটি দুর্দান্ত ব্যাটি করেছিল। রেকর্ড গড়া সেই জুটি এবার বেশিক্ষণ স্থায়ী হলো না।
ঝুঁকি নিয়ে নাথান লায়নকে উড়ানোর চেষ্টায় প্যাট কামিন্সের তালুবন্দি হলেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান।
এক বল আগেই মিড অফ ফিল্ডারের মাথার ওপর দিয়ে শট খেলে সাকিব পেয়েছিলেন চার রান। তার পুনরাবৃত্তি করতে গিয়ে মোটেও টাইমিং করতে পারেননি। স্পিন করে বেরিয়ে যাওয়া বলে ক্যাচ যায় কাভারে।

সাজঘরে তামিম
মধ্যাহ্নের বিরতির পর মাঠে এসেই প্যাট কামিন্সের বলে সাজঘরে ফিরেন তামিম ইকবাল। প্রথম টেস্টে দ্বিতীয়বারের মতো হাফসেঞ্চুরি করে ৭৮ রানে মাঠ ছাড়েন তিনি।

স্কোর কার্ড :
বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস : ২৬০ (সাকিব ৮৪, তামিম ৭১, আগার- ৩/৪৬)।
অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস : ২১৭ (রেনশ ৪৫, আগার ৪১*, সাকিব ৫/৬৮)।
বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস : (আগের দিন ৪৫/১ )

তামিম ইকবাল অপরাজিত ৭৮
সৌম্য সরকার ক খাজা ব আগার ১৫
তাইজুল এলবিডব্লু ব লিঁও ৪
ইমরুল কায়েস ক ওয়ার্নার ব লিঁও ২
মুশফিকুর রহিম রান আউট (লিঁও) ৪১
সাকিব আল হাসান ক কামিন্স ব লিঁও ৫
সাব্বির রহমান ক হ্যান্ডসকম্ব ব লিঁও ২২
নাসির হোসেন ক ওয়েড ব আগার ০
মেহেদি হাসান মিরাজ ক খাজা ব লিঁও ২৬
শফিউল ইসলাম ক হ্যান্ডসকম্ব ব লিঁও ৯
মুস্তাফিজুর রহমান অপরাজিত ০
অতিরিক্ত (বা-১৫, লে বা-৩, ও-১) ১৯
মোট (অলআউট, ৭৯.৩ ওভার) ২২১।

অস্ট্রেলিয়া বোলিং :
জশ হ্যাজেলউড : ৪.১-২-৩-০,
প্যাট কামিন্স : ১৪-৩-৩৮-১ (ও-১),
নাথান লিঁও : ৩৪.৩-১০-৮২-৬,
গ্লেন ম্যাক্সওয়েল : ৫-০-২৪-০,
অ্যাস্টন আগার : ২০.৫-২-৫৫-২,
উসমান খাজা : ১-০-১-০।

Leave a Reply

Top