এবার উত্তর কোরিয়াকে কড়া জবাবের হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের – Live News BD, The Most Read Bangla Newspaper, Brings You Latest Bangla News Online. Get Breaking News From The Most Reliable Bangladesh Newspaper; livenewsbd.co
You are here
Home > আন্তর্জাতিক > এবার উত্তর কোরিয়াকে কড়া জবাবের হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের

এবার উত্তর কোরিয়াকে কড়া জবাবের হুমকি যুক্তরাষ্ট্রের

উত্তর কোরিয়া যদি যুক্তরাষ্ট্র কিংবা মিত্রদেশগুলোর জন্য হুমকি হয়ে ওঠে তবে তাদেরকে বড় ধরনের সামরিক জবাবের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে বলে সতর্ক করেছেন মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জেমস ম্যাটিস।
পিয়ংইয়ংয়ের সর্বশেষ পারমাণবিক পরীক্ষার পর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক ব্রিফিংয়ের পর ম্যাটিসের এ সতর্কবার্তা আসে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

রোববার উত্তর কোরিয়া দূর পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রে জুড়ে দেয়া যায় এমন পারমাণবিক অস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালানোর দাবি করে।

তাৎক্ষণিকভাবে আন্তর্জাতিক মহল এই পরীক্ষার নিন্দা জানায়।

জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা ও আন্তর্জাতিক চাপ উপেক্ষা করেই গত কয়েক বছর ধরে টানা ক্ষেপণাস্ত্র ও পারমাণবিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে আসছে।

যুক্তরাষ্ট্রের উপর হামলা চালানোরও হুমকি দিয়ে আসছে তারা।

এসব বিবেচনায় নিয়ে পিয়ংইয়ংয়ের উপর বড় ধরণের প্রতিক্রিয়ার কথা বিবেচনা করা হচ্ছে বলে জানান পেন্টাগনপ্রধান ম্যাটিস।

তিনি হোয়াইট হাউজের বাইরে সাংবাদিকদের জানান, নিজেকে রক্ষা করার সক্ষমতা যুক্তরাষ্ট্রের আছে।

জাপান, দক্ষিণ কোরিয়াসহ মিত্রদের রক্ষায় যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান ‘ইস্পাতদৃঢ়’ থাকবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

“যুক্তরাষ্ট্র বা গুয়ামের মতো এর ভূখণ্ডভুক্ত এলাকা কিংবা আমাদের মিত্রদের উপর যেকোনো হুমকিকে বিশাল সামরিক প্রতিক্রিয়ার মুখোমুখি হতে হবে; এটা একইসঙ্গে কার্যকর ও যথোপযুক্ত।”

ম্যাটিসের আশা, এর আগেই পারমাণবিক অস্ত্র নিয়ে সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

“কারণ আমরা চাই না উত্তর কোরিয়া নামের কোনো দেশ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাক,” হুমকি ম্যাটিসের।

জাতিসংঘের যুক্তরাষ্ট্র মিশন জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার রোববারের পারমাণবিক পরীক্ষা নিয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ জরুরি বৈঠক ডেকেছে।

রোববার উত্তরপূর্ব কিজু এলাকায় ভূকম্পন অনুভূত হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর পিয়ংইয়ংয়ের পক্ষ থেকে ষষ্ঠ ওই পারমাণবিক বোমার পরীক্ষা চালানোর স্বীকারোক্তি আসে।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে চালানো পঞ্চম পারমাণবিক পরীক্ষা থেকে এবারেরটি ৯ দশমিক ৮ গুণ বেশি শক্তিশালী। পিয়ংইয়ং বলছে, তাদের পরীক্ষা চালানো হাইড্রোজেন বোমাটি আনবিক বোমার চেয়েও কয়েকগুণ বেশি শক্তিশালী।

দক্ষিণ কোরিয়া, চীন এবং রাশিয়া প্রত্যেকেই রোববার উত্তর কোরিয়ার ষষ্ঠ পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার নিন্দা জানিয়েছে। তাদের সঙ্গে নিন্দায় যোগ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রও।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, “উত্তর কোরিয়ার প্রতি দক্ষিণ কোরিয়ার সংহতির ভাষা কাজে আসছে না। দেশটি কেবল একটি জিনিসই বোঝে।”

তিনি বলেন, “উত্তর কোরিয়া একটি দুর্বৃত্ত রাষ্ট্র। তারা চীনের জন্য একটি বড় ধরনের হুমকি হয়ে ওঠার পাশাপাশি তাদের জন্য বিব্রতকর হয়ে উঠছে। চীনের চেষ্টা তেমন সফল হচ্ছে না।”

ওদিকে, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সবচেয়ে কঠোর প্রতিক্রিয়া জানানোর আহ্বান জানিয়েছেন। উত্তর কোরিয়াকে আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন করে ফেলতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নতুন নিষেধাজ্ঞার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

উত্তর কোরিয়ার পদক্ষেপে অত্যন্ত হতাশ এবং ক্ষুব্ধ মুন বলেন, “দেশটির অস্ত্র কর্মসূচি বিশ্ব শান্তির জন্য হুমকি এবং এতে করে দেশটি আরও বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে।”

উত্তর কোরিয়ার প্রধান মিত্র দেশ চীনও তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছে, “উত্তর কোরিয়া আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ব্যাপক বিরোধিতাকে আমলে নেয়নি।”

ফ্রান্স এবং জার্মানিও উত্তর কোরিয়ার পদক্ষেপকে ‘নতুন মাত্রার প্ররোচনা’ বলে এর নিন্দা জানিয়েছে।

আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা (আইএইএ) উত্তর কোরিয়ার এ পদক্ষেপকে ‘অত্যন্ত দুঃখজনক কর্মকাণ্ড’ বলে বর্ণনা করেছে।

রাশিয়া সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানিয়েছে এবং এটিই কোরিয়া উপদ্বীপ সমস্যা সমাধানের একমাত্র পথ বলে উল্লেখ করেছে।

Leave a Reply

Top