You are here
Home > সারা বাংলা > এই শহরে একটি ইট ভাঙলে আমি বেশি কষ্ট পাই— মেয়র জাহাঙ্গীর আলম

এই শহরে একটি ইট ভাঙলে আমি বেশি কষ্ট পাই— মেয়র জাহাঙ্গীর আলম


ইমন খানঃ

রাস্তা প্রসস্থ করতে গিয়ে যদি একটি ইটও ভাংগা পড়ে, আমি সবচেয়ে বেশি কষ্ট পাই। কারণ কথা দিয়েছি জান ও মাল দুটোরই হেফাজতের দায়িত্ব নিবো। এখন সেই দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে ২/৪ জনের অসুবিধা করে লক্ষ লক্ষ মানুষ কে বাচানোর চেষ্টা করছি। এতে যদি আমার ভোট কমে, তাতে কোন দুঃখ নেই। নিজ ওয়ার্ডে জাতীয় শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমন হৃদয় বিদারক কথা বলেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব এ্যাডঃ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই দেশে মেট্রোরেল, ৪ লেন থেকে ৮ লেন রোড করছে,পদ্মা সেতু করছেন। তিনি রাতদিন পরিশ্রম করে অসম্ভব কে সম্ভব করছেন,আমরা কেন পারবো না। তিনি জাতির পিতা কন্যা হয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে দৈনিক ১৭ ঘন্টা কাজ করেন, আমরা কেন পারবো না। শুধু বক্তব্য আর মিথ্যা কথা বলে বেশিদিন টিকে থাকা যায় না। শোক সভায় আসা সকলকে উদ্দেশ্য করে বলেন,যারা বিগত ৩০/৪০ বছর ক্ষমতায় ছিলো,তাদের কাছ থেকে কাজের হিসেব নেন। আর আমি ২ বছরের মাথায় কি করছি,সেই হিসেবও নেন। ভোটের সময় ভোট দিবেন,আর ধোঁকাবাজি করে দাওয়াত খাবে, সেটা হবে না। এখন কাজের যুগ,দেশ অাধুনিক হচ্ছে,আমরা গ্রামকে শহর হিসেবে রুপান্তিত করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিষণ বাস্তবায়ন করার জন্য অপ্রাণ চেষ্টা করছেন। তার একজন কর্মী হয়ে আমরাও চেষ্টা করি। কোন সমালোচনা নয়,কাজের মাধ্যমে প্রমাণ দিবো কি করেছি আর করছি। দুই বছরে প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই গাজীপুর কে উন্নয়ন করার জন্য বরাদ্দ দিয়েছেন। আমি চেষ্টা করেছি বাসযোগ্য একটি শহর করার জন্য । মানুষ মারা গেলে জানাজা দেওয়ার জায়গা নাই,পরের মাটিতে দাফন করতে হয়,এর চেয়ে কষ্টের কি হতে পারে। অথচ করো কোন ব্যক্তিগত কবরস্থান নেই, সবাই ৫/১০ তলা বাড়ি করে ঐ কবরের জন্য কিছুই করে না। রাস্তা ড্রেনের কাজ এক সাথে ধরেছি,সবাই সহযোগিতা করবেন। মেয়র জাতির পিতাকে স্বরণ করতে গিয়ে বলেন,একটি মানচিত্র দিয়েছেন,আর তাকেই মানচিত্র থেকে আলাদা করে দিলো ঐ মোশতাক জিয়াউর রহমানরা। আমরা এই শোক সভায় দাড়িয়ে বলতে চাই, বেচে থাকা সকল খুনিদের ফাঁসির রায় কার্যকর করা হউক। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শোক দিবস নগরের ৩৪ নং ওয়ার্ড এলাকায় মালেকের বাড়ি অনুষ্ঠিত হয়। ২২ শে আগষ্ট শনিবার বিকাল ৪ টায় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এর সভাপতিত্বে ও গাজীপুর মহানগর কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আব্দুল হামিদ’র সঞ্চালনায় আরো উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডঃ মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, সদস্য হাজী আব্দুর রশিদ মিয়া, সদস্য এস এম শামিম আহমেদ,গাছা থানা আওয়ামী লীগ নেতা হাজী আদম আলী,বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও আওয়ামী লীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার মমতাজ উদ্দিন, ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি পদপ্রার্থী মোঃ আফজাল হোসেন খান, ৩৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা মোনায়েম খান,আব্দুর রশিদ, মোশারফ মন্ডল,মামুন সরকার,মিয়া নুরুল আলম নুরু,স্বপন প্রমূখ। আলোচনা শেষে তবারক বিতরণের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।

Leave a Reply

Top