You are here
Home > প্রচ্ছদ > অবসর সময়ে শিক্ষকতা করেন এএসপি

অবসর সময়ে শিক্ষকতা করেন এএসপি

স্থানীয় প্রতিনিধি : অবসর পেলেই বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিতে ছুটে যান নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শরফুদ্দিন। শিক্ষকতা তার নেশা। এক সময় মাগুরা একটি জেলা উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক ছিলেন। তাই সুযোগ পেলেই ৯ম ও দশম শ্রেণির ক্লাস নেন এই এএসপি। আজ দুপুরে ফতুল্লার ইসদাইর রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের পাঠদানসহ ইভটিজিং, বাল্যবিয়ে ও অপসংস্কৃতি নিয়ে ক্লাসে আলোচনা করেন তিনি। ওই সময় ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামাল উদ্দিন, বিদ্যালয়ের ৫৮জন শিক্ষক ও ১৭শ শিক্ষার্থীসহ ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এএসপি বিভিন্ন বিষয়ে পাঠদান শেষে বলেন, কোন রকম ইভটিজিং এর  শিকার হলে আমার মোবাইল নম্বরে ফোন করবে। আমি চলে আসব। তোমরা আমার মেয়ের মত। সার্টিফিকেট বড় নয়। ভালো মানুষ হওয়াটাই সবচেয়ে বড় পাওয়া। এই নিয়ত করে চলবা সবাই।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামালউদ্দিন বলেন, স্যার এক সময় শিক্ষকতা করতেন। তাই সুযোগ পেলেই বিভিন্ন স্কুলে ক্লাস নিতে ছুটে যান। আমারও ভালো লাগে স্যারের এই কাজটি। এটা আমাদের সবাইকে অনুপ্রাণিত করছে।

ক্লাসে আরো উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান, সহকারী শিক্ষক খন্দকার মোহাম্মদ ইউনুছ, আব্দুস সোবহান, স্থানীয় ইউপি সদস্য আলী আকবর, সামাজিক সংগঠন বন্ধন গার্ডেনের সাধারণ সম্পাদক রোমান চৌধুরী সুমন প্রমুখ।

Leave a Reply

Top